ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৬ ভাদ্র ১৪২৬, ২২ আগস্ট ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

চমকপ্রদ ক্যামেরা ও দুর্দান্ত ডিসপ্লে নিয়ে আসছে অপো রেনো

মনিরুল হক ফিরোজ : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৬-০৯ ৮:০৫:৪১ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৬-০৯ ৮:০৬:৪৪ পিএম
চমকপ্রদ ক্যামেরা ও দুর্দান্ত ডিসপ্লে নিয়ে আসছে অপো রেনো
Walton E-plaza

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক : দেশের বাজারে চলতি মাসেই আসছে অপোর নতুন রেনো সিরিজের স্মার্টফোন। রেনো এবং রোনো ১০এক্স জুম- এই দুটি মডেল পাওয়া যাবে বাজারে। অপোর নতুন এই সিরিজের ফোন ক্যামেরার পাশাপাশি ডিসপ্লের কারণেও ইতিমধ্যে বিশ্ববাজারে নজর কেড়েছে।

অপোর রেনো ফোনের ৬.৪ ইঞ্চি অ্যামোলেড ডিসপ্লেতে এবং রেনো ১০এক্স জুম ফোনের ৬.৬ ইঞ্চি অ্যামোলেড ডিসপ্লেতে থাকছে ১৯.৫:৯ রেশিওর স্ক্রিন, ২৩৪০*১০৮০ পিক্সেলের রেজ্যুলুশন। ডিসপ্লেটি মজবুত করতে এতে থাকছে গরিলা গ্লাস ৬। এছাড়াও থাকছে ৯৩.১% বডি টু স্ক্রিন রেশিও, যা বর্তমানে বিশ্বে সর্বোচ্চ রেশিও সমৃদ্ধ ফোনগুলোর মধ্যে অন্যতম। রয়েছে ৬০০০০:১ কনট্রাস্ট রেশিও। যদিও অপো রোনো সিরিজের ফোনের ব্রাইটনেস রেটিং প্রকাশ করেনি, তবে যেহেতু এটি ডিসিআই-পি৩ স্ট্যান্ডার্ড, তাই ধারণা করা যায় এর ডিসপ্লে উজ্জ্বলতর হবে। অ্যামোলেড স্ক্রিন এবং ডিসিআই-পি৩ স্ট্যান্ডার্ড হওয়ায় দিনের আলোতে সরাসরি সূর্যের আলোতেও এর ডিসপ্লে থাকবে স্পষ্ট এবং উজ্জ্বল। এছাড়াও এই ডিসপ্লেতে টেক্সট অধিক স্পষ্টভাবে দেখা যাবে। আর এটির বড় স্ক্রিন বিশেষ করে ভিডিও দেখা এবং গেম খেলবার জন্যে খুবই উপযোগী।

অপো এই নতুন সিরিজের ফোনের ডিফল্ট ডিসপ্লে সেটিং চোখের উপর কোনো চাপ না ফেলেই অধিক উজ্জ্বল ভাবে ভিজ্যুয়াল এক্সপেরিয়েন্স দেবে। তারপরও এতে থাকছে ডিসপ্লে অপশন পরিবর্তনের বেশ কিছু সুযোগ, যার মাধ্যমে প্রত্যেক ব্যবহারকারী তার নিজের উপযোগী করে নিতে পারবেন এর ডিসপ্লে। স্লাইডারের মাধ্যমে ডিসপ্লের কালার টেম্পারেচার কুল থেকে ওয়ার্ম করার সুযোগ থাকছে এতে। এছাড়াও রয়েছে স্ক্রিন কালার মোড। ডিফল্ট অপশন হিসেবে থাকছে ভিভিড কালার অপশন আর জেন্টল অপশন বেছে নেবার মাধ্যমে কিছুটা কম কনট্রাস্টের এবং ফ্যাঁকাসে ধাঁচের কালার অপশন বেছে নেবার সুযোগ থাকছে অপো রেনো এবং রোনো ১০এক্স জুম ফোনে।

সাধারণ বড় ডিসপ্লে ব্যাটারি লাইফের জন্যে হুমকি হলেও, এই দুশ্চিন্তা থেকে মুক্তি দিতে রেনোতে থাকছে ৩৭৬৫ মিলিঅ্যাম্পিয়ার এবং রেনো ১০এক্স জুম এ থাকছে ৪০৬৫ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের ব্যাটারি। আর ব্যাটারি দ্রূত চার্জ করতে এতে থাকছে ভুক ৩.০ ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তির চার্জার।

ফোন দুটিতে বেজেল এতোটাই কম যে, প্রথম দেখাই মনেই হবে না এর কোনো রিম আছে। তবে ভালো করে তাকালে তবেই চোখে পড়ে এর নিচে ও উপর দিকে থাকা সরু কিনারা। এমনকি সামনে থাকা স্পিকারটিও এতো সরু ভাবে স্থাপন করা হয়েছে স্পর্শ না করলে বোঝারই উপায় নেই এর অস্তিত্ব।

হাত থেকে পতন কিংবা আঘাত থেকে ফোনকে সুরক্ষা দিতে রয়েছে সর্বাধুনিক প্রযুক্তির গরিলা গ্লাস ৬। এমনকি ফোনের ব্যাক কাভারেও রয়েছে গরিলা গ্লাস। বাজারে প্রচলিত রিয়ার ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরের পরিবর্তে রোনো সিরিজের ফোনের ডিসপ্লেতেই স্থাপন করা হয়েছে ‘গুডিক্স’ এর ইন স্ক্রিন ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, যা বিশ্বের মাত্র ৪০টি স্মার্টফোন মডেলে স্থাপন করা হয়েছে। ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরটি গুডিক্স এর দ্বিতীয় কিংবা তৃতীয় প্রজন্মের সেন্সর হবে বলে জানা গেছে। অপোর মতে, বাজারে থাকা যেকোনো ফোনের চেয়ে এই ফোনের সেন্সর ২০ থেকে ৩০ শতাংশ নিখুঁত এবং ৩০% কম সময়ে ফোন আনলক করতে সক্ষম।

রেনো সিরিজের দুটি ফোনেই সেলফি ক্যামেরার ক্ষেত্রে রয়েছে চমক। দুটি ফোনেই থাকছে আড়াল থেকে উঠে আসা একটি রাইজিং ক্যামেরা, যা প্রথম দেখায় শার্কফিন বা হাঙরের পাখনা বলে ভ্রম হয়।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/৯ জুন ২০১৯/ফিরোজ

Walton AC
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       

Walton AC
Marcel Fridge