ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

পাকিস্তানে পিএসএল খেলতেও চাননি মুশফিক

ক্রীড়া প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০১-১৮ ১:০৩:২৪ এএম     ||     আপডেট: ২০২০-০১-১৮ ১:১০:৫৩ পিএম

মুশফিকুর রহিম পাকিস্তান সফরে যেতে যে অনিচ্ছুক সেটা বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন আগেই জানিয়েছিলেন। প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নুও জানিয়েছিলেন পারিবারিক কারণে পাকিস্তানে যেতে চাচ্ছেন না উইকেটরক্ষক এই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান।

বঙ্গবন্ধু বিপিএলের ফাইনালের পর পাকিস্তান সফরে না যাওয়ার বিষয়টি মুশফিক নিজেই জানিয়েছেন। কেন করবেন না সেই উত্তরও দিয়েছেন ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে, ‘পারিবারিক কারণে আমি পাকিস্তানে যেতে চাচ্ছি না। শুধু টি-টোয়েন্টি না খেলার বিষয় না, আমি পাকিস্তানে যেতেই অনিচ্ছুক। আমার পরিবার পাকিস্তানে যাওয়ার ইস্যুতে ভীত। এমন মানসিক অবস্থা নিয়ে আমি খেলতে পারি না।’

জাতীয় দলের নিয়মিত ক্রিকেটারদের মধ্যে কেবল মুশফিকই পাকিস্তান সফর থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন। মৌখিক সিদ্ধান্ত জানানোর পর মুশফিক আনুষ্ঠানিক চিঠিও দিয়েছেন ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগকে। শুধু জাতীয় দল নয় মুশফিক এ বছর পাকিস্তান সুপার লিগেও না খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

এবার পিএসএলের সব ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে পাকিস্তানে। বাংলাদেশ থেকে ৩৫ ক্রিকেটার নিজেদের নাম নিবন্ধন করেছিলে এই লিগের অকশনে জন্য। মুশফিক নেই সেই তালিকাতে। তাই শুরু থেকেই পাকিস্তান সফরে অনীহা তার। পরিবার থেকে অনুমতি না পাওয়াই তার অনীহার বড় কারণ।

‘পিএসএলের মতো বড় একটি টুর্নামেন্ট সেখানে হবে। সে কারণে আমি কিন্তু প্রথমেই না করে দিয়েছি। কেননা আমি জানি পুরো টুর্নামেন্ট এবার পাকিস্তানে হবে। আমি তখনই বলেছি, যেহেতু আমার পরিবার আমাকে অনুমতি দিচ্ছে না, সেখানে আমি কখনোই খেলতে পারব না। কেননা জীবনের চেয়ে কখনোই ক্রিকেট বড় হতে পারে না।’

মুশফিক একবারই পাকিস্তান সফর করেছেন। ২০০৮ সালে সেখানে খেলেছিলেন এশিয়া কাপ। পরের বছরই সেখানে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের উপর সন্ত্রাসী হামলা হয়। এরপর বড় বড় দলগুলো পাকিস্তান সফর থেকে মুখ ফিরিয়ে নেয়। সম্প্রতি ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও শ্রীলঙ্কা গিয়েছিল পাকিস্তান সফরে। বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে সফর সংক্ষিপ্ত করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বিসিবিকে। তাই তিন ধাপে পাকিস্তান সফরে যাবে বাংলাদেশ।

সবকিছু বিবেচনায় এনেও মুশফিক পাকিস্তান সফরে না যাওয়ার কঠিন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মুশফিক, ‘এটাও বলতে হবে যে পাকিস্তান এখন আগের চেয়ে ভালো অবস্থায় আছে। আমি চাই যে আগামী ২-৩ বছর ধারাবাহিকভাবে আরো দল যাক সেখানে। তখন আমিও পাকিস্তানে যাওয়ার আত্মবিশ্বাস পাব। আমি ২০০৮ সালে পাকিস্তান সফর করেছি। পাকিস্তান ভালো একটা জায়গা। উইকেট দারুণ। এ দিক থেকে সফরটা অনেক মিস করব। তবে ভবিষ্যতে ২/৩ বছরের মধ্যে পরিস্থিতি ধারাবাহিকভাবে ভালো থাকলে সেখানে না যাওয়ার কোন কারণ থাকবে না।’

 

ঢাকা/ইয়াসিন/নাসিম/আমিনুল

     
 
রাইজিংবিডি স্পেশাল ভিডিও