ঢাকা, বুধবার, ২৫ চৈত্র ১৪২৬, ০৮ এপ্রিল ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

আপনার ঘরের ক্যাপ্টেন এখন আপনি: মাশরাফি

ক্রীড়া ডেস্ক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৩-২৩ ৮:৩৬:৩৬ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৩-২৪ ১০:০৪:৪০ পিএম

‘আপনার ঘরের ক্যাপ্টেন এখন আপনি। যদি আপনি ঘরে ক্যাপ্টেন্সি ঠিকমতো করতে পারেন। আমি নিশ্চিত কিছুটা হলেও সুরক্ষা নিশ্চিত হবে। অন্যথায় কিন্তু বিপর্যয় আসতে পারে।’- করোনাভাইরাস নিয়ে সবাইকে সচেতন করতে গিয়ে এভাবেই বলেন বাংলাদেশের সফল অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা।

বাংলাদেশে করোনাভাইরাস রোগী সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে। ইতিমধ্যে ৩ জন মারা গেছেন এই রোগে আক্রান্ত হয়ে। দেশে এখনো করোনাভাইরাস দুর্যোগের সৃষ্টি করতে পারেনি। তবে আমাদের অসেচতনতা সে সম্ভাবনা বাড়িয়ে দিতে পারে। তাই দেশের সুরক্ষা, নিজের সুরক্ষা ও পরিবারের সুরক্ষা নিশ্চিত করার জন্য আমাদের সচেতন হতে হবে। আজ এক ভিডিও বার্তায় দেশবাসির কাছে এমন আহবান জানালেন বাংলাদেশের সাবেক ওয়ানডে অধিনায়ক ও নড়াইলের এমপি মাশরাফি বিন মুর্তজা।

রাইজিংবিডি’র পাঠকের জন্য মাশরাফি বিন মুর্তজার সে ভিডিও বার্তা তুলে ধরা হলো:

‘আশা করি সবাই ভালো আছেন। যদিও ভালো আছেন বলাটা এই মুহূর্তে ঠিক না। কারণ সবাই মানসিকভাবে বিপর্যস্ত।

করোনাভাইরাস নিয়ে আমরা সবাই জানি। অনেকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কথা বলেছি। তবে সবখানে এখন করোনাভাইরাস নিয়ে আতঙ্কের কথা শোনা যাচ্ছে। আতঙ্কিত না হওয়ারও কারন নাই। পৃথিবীর বড় বড় দেশ এখন করোনায় মানসিক, শারীরিক ও সামাজিকভাবে বিপর্যস্ত। তারা কোনোভাবে আটকাতে পারছে না। সেখানে আমাদের দেশ তো এমনিতে ছোট। মানুষের সংখ্যাও অনেক বেশি। আমাদের যদি এরকম দুর্যোগ আসে। যদিও আল্লাহ না করুক।

তাই এই মুহূর্তে আমাদের করণীয় আছে অনেক কিছু...

প্রথমত, ঘরে থাকা। সৃষ্টিকর্তার প্রার্থনা করা। এ ধরনের দুর্যোগ থেকে আমাদের রক্ষা করতে সহযোগিতা করতে বলা। সবাই যাতে সুস্থ থাকে।

দ্বিতীয়ত, প্রবাসে যারা ছিলেন বা বেড়াতে গিয়েছেন এবং এখন ফিরে আসছেন। আপনাদের অনেক কিছু করার আছে। আপনারা নিয়মকানুন গুলো অবশ্যই মেনে চলা উচিত। আপনারা গৃহবন্দি হয়ে পরিবার ছাড়া আলাদা হয়ে ১৪দিন থাকুন। ১৪ দিন পার হওয়ার পর যদি আপনি অসুস্থ না হন। তাহলে আপনার পরিবারকে নিয়ে ঘরে থাকুন। যতক্ষণ পর্যন্ত ডাক্তার বা উচ্চপদস্থ কেউ ঘোষণা না দিচ্ছেন, আমরা নিরাপদ। ততক্ষণ পর্যন্ত ঘরে থাকুন।

তৃতীয়ত, সাবান দিয়ে নিয়মিত হাত ধুঁতে হবে। নিয়মিত পানি পান করতে হবে ১৫-২০ মিনিট পর পর। আপনার ঘর, চারিপাশ পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে।

আরো কঠিন অবস্থায় যাওয়ার পর এসব নিয়ম মেনে চললেও আর কোনো সুযোগ আমরা পাবো না। আমাদের উচিত এখন থেকে বিষয়টি শক্ত হাতে প্রতিহত করা। কারণ পরে এটা দেশের জন্য অনেক বড় দুর্যোগ হতে পারে।

করোনাকে আমরা গুরুত্ব না দিলে যদি হঠাৎ করে এটা আমাদের নিজেদের, পরিবার বা রাষ্ট্রকে আঘাত করে সেটা আমরা মেনে নিতে পারবো না। তাই দেশের সুরক্ষা, নিজের সুরক্ষা ও পরিবারের সুরক্ষা নিশ্চিত করার জন্য আমাদের সচেতন হতে হবে।’


ঢাকা/কামরুল