ঢাকা, শুক্রবার, ১৯ আষাঢ় ১৪২৭, ০৩ জুলাই ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

৩০০ জন প্রতিবন্ধীকে ত্রাণ ও নগদ অর্থ দিলো এনএএসপিডি

ক্রীড়া ডেস্ক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৫-০৫ ৮:৪৮:১৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৫-০৫ ১০:২৬:০২ পিএম

মহামারি করোনাভাইরাসের এই ক্রান্তিকালে ৩০০ জন প্রতিবন্ধীকে ত্রাণ ও নগদ অর্থ সহায়তা দিয়েছে জাতীয় প্রতিবন্ধী ক্রীড়া সমিতি (এনএএসপিডি)। মঙ্গলবার এনএএসপিডির প্রধান উপদেষ্টা ড. মাহফুজুর রহমান, ওয়ালটন গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক ও এনএএসপিডির সভাপতি এফএম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন) ও মহাসচিব ড. সেলিনা আখতার প্রতিবন্ধীদের হাতে এই ত্রাণ ও নগদ অর্থ তুলে দেন।

৩০০ জনের মধ্যে ব্লাইন্ড ফুটবল দল ও দাবা দলের খেলোয়াড়রাও ছিলেন। ছিলেন দৃষ্টি, শারীরিক, শ্রবণ, বাক ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধীরাও। এর বাইরে ধানমন্ডি ও কাওরান বাজার এলাকায় দরিদ্র ও অসহায় মানুষের মধ্যে ত্রাণ ও অর্থ সহায়তা দেওয়া হয় সংগঠনটির পক্ষ থেকে।

এ বিষয়ে এফএম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন) বলেন, ‘করোনাভাইরাসের এই সময়ে আমরা সাধ্যমতো চেষ্টা করছি প্রতিবন্ধীদের পাশে দাঁড়ানোর। কারণ, করোনাভাইরাসের এই সময়ে সবচেয়ে বেশি অসহায় হয়ে পড়েছে বিভিন্ন শ্রেণির প্রতিবন্ধীরা। অন্যরা হয়তো মানুষের কাছে চাইতে পারছে, বাইরে গিয়ে কিছু করতে পারছে, প্রতিবন্ধীরা সেটা পারছে না। তাই বিত্তবানসহ সবাইকে আহব্বান জানাচ্ছি প্রতিবন্ধীদের পাশে দাঁড়ানোর।’

জাতীয় প্রতিবন্ধী ক্রীড়া সমিতি ও জাতীয় প্রতিবন্ধী ফোরামের মহাসচিব ড. সেলিনা আক্তার বলেন, ‘বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের শুরু থেকেই আমরা প্রতিবন্ধীসহ অসহায় ও দরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছি। আজ মঙ্গলবার ৩০০ জন বিভিন্ন ধরনের প্রতিবন্ধীদের ত্রাণ ও নগদ অর্থ সহায়তা দিয়েছি। তার মধ্যে প্রতিবন্ধী ফুটবল দল ও দাবা দলের খেলোয়াড়রাও ছিলেন। এর বাইরে আমরা ধানমন্ডি ও কাওরান বাজার এলাকায় দরিদ্র ও অসহায় মানুষের ত্রাণ ও অর্থ সহায়তা দিয়েছি। আমাদের সীমিত সামর্থ দিয়ে এই সহায়তা কার্যক্রম চালিয়ে যাবো।’

বাংলাদেশের মতো উন্নয়নশীল দেশগুলোতে প্রতিবন্ধীদের সংখ্যা মোট জনসংখ্যার ১০ শতাংশ। প্রতিবন্ধীদের প্রতি মানুষের দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন হলেও এখনো অনেক ক্ষেত্রেই বঞ্চিত তারা। তাদের নিয়ে কাজ করেছে বিভিন্ন সরকারি, বেসরকারি ও আন্তর্জাতিক সংগঠন। তাদের মধ্যে অন্যতম জাতীয় প্রতিবন্ধী ক্রীড়া সমিতি (এনএএসপিডি)। যারা ২০০০ সাল থেকে সব ধরণের প্রতিবন্ধীদের নিয়ে কাজ করছে।

বছরে বেশ কয়েকবার তাদের নিয়ে ক্রীড়া উৎসবের আয়োজন করছে। নানারকম ক্রীড়া আয়োজন ও প্রশিক্ষণ দেওয়ার মাধ্যমে প্রতিবন্ধীদের দক্ষ করে গড়ে তোলার চেষ্টা করছে এবং তাদেরকে দেশের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত করতে কাজ করে যাচ্ছে।

 

ঢাকা/আমিনুল