ঢাকা, মঙ্গলবার, ৭ শ্রাবণ ১৪২৬, ২৩ জুলাই ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

রংপুরে ঈদবাজারে সব শ্রেণির মানুষের ঢল

নজরুল মৃধা : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৬-০৩ ৫:৩৭:৫৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৬-০৩ ৯:০১:১৭ পিএম
রংপুরে ঈদবাজারে সব শ্রেণির মানুষের ঢল
Voice Control HD Smart LED

নিজস্ব প্রতিবেদক, রংপুর : রংপুরে ঈদবাজারে সব শ্রেণি-পেশার মানুষের ঢল নেমেছে। উচ্চবিত্ত, মধ্যবিত্ত, নিম্নবিত্ত মানুষ যার যার সাধ্যমতো কেনাকাটা করছেন। ফলে জমজমাটভাবে চলছে ঈদবাজার।

বড় বড় বিপণীবিতানের পাশাপাশি ফুটপাতের দোকানদাগুলোও মানুষের পদচারণায় মুখর। ফুটপাতের দোকানগুলোতে নিম্নবিত্ত মানুষের ভিড় বেশি। শহরের সালেক মার্কেট, স্টেশন মার্কেট, জামাল মার্কেট, হনুমানতলা মার্কেটে মধ্যবিত্ত মানুষের সংখ্যাই বেশি। জেলা পরিষদ সুপার মার্কেট,  জাহাজ কোম্পানি শপিং কমপ্লেক্স, গোল্ডেন টাওয়ার বিপণীবিতান, রজনীগন্ধা, শাহ আমানত, কারুপণ্য, সিটি প্লাজা, মতি প্লাজাসহ বড় বড় বিতণীবিতানে উচ্চ আয়ের মানুষ কেনাকাটার জন্য ভিড় করছেন। তবে এবার দোকানগুলোতে ভারতীয় কাপড়ের চেয়ে দেশি কাপড়ের চাহিদা বেশি।

এসব বিপণীবিতানে সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত কেনাকাটায় ব্যস্ত মানুষ। যার যার সামর্থ অনুযায়ী নতুন পোশাক কিনছেন। বড় বড় বিপণীবিতানে বাছাই করা কাপড় শো-রুমে শোভা পাচ্ছে। সামর্থবানরা সবচেয়ে সুন্দর ডিজাইনের জামা-কাপড় কেনার চেষ্টা করছেন প্রিয়জনের জন্য।

কাওছার জামান ও বেবি জামান নামে দুই ক্রেতা জানান, অভিজাত মার্কেটগুলোতে দাম কিছুটা বেশি। প্যান্ট, শার্ট, থ্রিপিস, শাড়ি ও তৈরি পোশাকসহ সব পণ্যের দাম গতবারের তুলনায় ৩০০ থেকে ৬০০ টাকা বেশি। শহরের কমদামি মার্কেট হিসেবে পরিচিত হনুমানতলা বাজারে ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড় দেখা গেছে।

 



জাহাজ কোম্পানি শপিং কমপ্লেক্সের দোকানি রফিকুল ইসলাম, ঈদ উপলক্ষে এ মার্কেটে শুধু রংপুরের মানুষ নন, দিনাজপুর, পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও, নীলফামারি, কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাট, বগুড়া, গাইবান্ধার ফ্যাশন সচেতন মানুষ ভিড় করছেন।

ব্যবসায়ী আলী ও আফজাল জানান, এখন রেডিমেড পোশাক সবচেয়ে বেশি বিক্রি হচ্ছে, বিশেষ করে শিশুদের পোশাক।

তারা বলেন, মেয়েদের পছন্দের শীর্ষে রয়েছে, থ্রিপিস, জর্জেট, চায়না চিকেন থান কাপড়। এবছর চায়না চিকেন থান কাপড় ৫০০ থেকে ২ হাজার টাকা দামে বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া, প্রকারভেদে থ্রিপিস ৩০০ থেকে ১০ হাজার টাকা, শাড়ি ২৫০ থেকে ২৫ হাজার টাকা, প্যান্ট পিস ৩০০ থেকে ২ হাজার টাকা, শার্ট পিস ২০০ থেকে ৯০০ টাকা বিক্রি হচ্ছে।

রংপুর মেট্রোপলিটন চেম্বারের সভাপতি রেজাউল ইসলাম মিলন জানান, এখন ব্যবসায়ীদের দম ফেলারও সময় নেই। রাত-দিন চলছে বেচাকেনা। গত বছরের চেয়ে এবার বিক্রি ভালো।



রাইজিংবিডি/রংপুর/৩ জুন ২০১৯/নজরুল মৃধা/রফিক

Walton AC
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       

Walton AC
Marcel Fridge