ঢাকা, বুধবার, ২৮ কার্তিক ১৪২৬, ১৩ নভেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

ওয়ালটন এসিতে বিদ্যুৎ বিল ফ্রি পেয়ে মহাখুশি তাজনুরা বেগমসহ ৫ জন

জনি সোম : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৪-০৪ ১১:৫৩:৪৭ এএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৫-০৪ ৬:৩৩:২৬ পিএম
নড়াইলের তাজনুরা বেগমের হাতে এক বছরের বিদ্যুৎ বিলের টাকা তুলে দেয়া হচ্ছে

জনি সোম : এয়ার কন্ডিশনার বা এসিতে বিশেষ সুবিধা দিচ্ছে দেশের ইলেকট্রনিক্স জায়ান্ট ওয়ালটন। দেশব্যাপী চলমান ডিজিটাল ক্যাম্পেইন সিজন-ফোর এ এসি কিনে ক্রেতারা পাচ্ছেন পুরো এক বছরের বিদ্যুৎ বিলের টাকা ফ্রি পাওয়ার সুযোগ। এ অফারের আওতায় গত ৩১ মার্চ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের পাঁচজন ক্রেতা পেয়েছেন এক বছরের বিদ্যুৎ বিল ফ্রি।

এই পাঁচজন ভাগ্যবান ক্রেতা হলেন-নড়াইলের তাজনুরা বেগম, ঢাকার লেফটন্যান্ট কর্নেল সালমা হামিদ, বগুড়ার মোহাম্মদ ছামাদ মিয়া ও মোহাম্মদ টুটুল এবং ফেনীর কাজী নুরুল আফসার নবী। এসি কিনে পুরো এক বছরের বিদ্যুৎ বিল ফ্রি পেয়ে মহাখুশি তারা।

নড়াইল ওয়ালটন প্লাজা থেকে একটি ২ টনের ইনভার্টার টেকনোলজির এসি কিনে এক বছরের বিদ্যুৎ বিল ফ্রি পান তাজনুরা বেগম। বাড়িতে ব্যবহারের উদ্দেশ্যে ৭৬ হাজার ৪০০ টাকা দামের এসিটি তিনি কিস্তি সুবিধায় কেনেন। এক বছরের বিদ্যুৎ বিল বাবদ তিনি পান ২১ হাজার ৬০০ টাকা।

গৃহিণী তাজনুরা বেগম বলেন, ‘ওয়ালটন পণ্য আমি এর আগেও ব্যবহার করেছি। আমার বাড়ির ফ্রিজ ও টিভি ওয়ালটনের। ভালো সার্ভিস দেওয়ায় এসিটাও ওয়ালটন থেকে কিনলাম। কিস্তিতে এসি কিনে বিদ্যুৎ বিল ফ্রি পেয়ে আমরা মহাখুশি।’

ওই দিনই ঢাকার কচুক্ষেতের ওয়ালটন প্লাজা থেকে ৭৬ হাজার ৫০০ টাকায় ২ টনের ইনভার্টার টেকনোলজির এসি কিনে এক বছরের বিদ্যুৎ বিল বাবদ ২১ হাজার ৬০০ টাকা পান লেফটেন্যান্ট কর্নেল সালমা হামিদ। গতকাল মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) সালমা হামিদের অনুপস্থিতিতে তার ছেলে ইউসুফ রায়হানের হাতে প্রাপ্ত টাকা হস্তান্তর করা হয়।

লেফটেন্যান্ট কর্নেল সালমা হামিদ বলেন, ‘আমি সব সময় দেশীয় কোম্পানির পণ্য কিনি। আর দেশি পণ্যের মধ্যে ওয়ালটন ব্র্যান্ডের মান সবচেয়ে ভালো। এইজন্য ওয়ালটন এসি কিনেছি। আমার বাসায় ওয়ালটনের ফ্রিজ এবং টিভি রয়েছে। খুবই ভালো সার্ভিস পাচ্ছি।’

এদিকে গত ৩১ মার্চ ঢাকার আশুলিয়ার নামাজঘর এবং জিরাবো বাজারে ওয়ালটনের দুটি এক্সক্লুসিভ শোরুম (এম আর ইলেকট্রনিকস-১ এবং ২) থেকে এসি কিনে এক বছরের বিদ্যুৎ বিল ফ্রি পান ছামাদ মিয়া এবং টুটুল। তাদের দুজনের বাড়িই বগুড়া সদরে। কিন্তু চাকরিসূত্রে তারা বর্তমানে আশুলিয়ায় বসবাস করছেন।

এক বছরের বিদ্যুৎ বিল নিচ্ছেন ঢাকার লেফটেন্যান্ট কর্নেল সালমা হামিদের ছেলে ইউসুফ রায়হান

এই দুই ক্রেতা ওয়ালটনের একই ডিস্ট্রিবিউটরের দুটি শোরুম থেকে দেড় টনের দুটি এসি কেনেন। ছামাদ মিয়ার কেনা এসিটির দাম ৪৯ হাজার ৯০০ টাকা। আর টুটুল যেটি কেনেন সেটি স্মার্ট এসি। যার দাম ৬৫ হাজার টাকা। দুজনই চলমান ওয়ালটন ডিজিটাল ক্যাম্পেইনে রেজিস্ট্রেশন করে এক বছরের বিদ্যুৎ বিল ফ্রি পেয়েছেন। বিদ্যুৎ বিল বাবদ দুজনেই পেয়েছেন ১৮ হাজার টাকা করে।

একই দিনে ফেনীর ওয়ালটন প্লাজা থেকে ৫৬ হাজার টাকা দিয়ে ২ টনের এসি কিনে এক বছরের বিদ্যুৎ বিল বাবদ ২১ হাজার ৬০০ টাকা পান দেবীপুরের ব্যবসায়ী কাজী নুরুল আফসার নবী।

তিনি জানান, ওয়ালটন এসি গুণগত মানে সেরা এবং দামে সাশ্রয়ী। তার এলাকার মসজিদের জন্য তিনি এসিটি কিনেছেন। অপ্রত্যাশিতভাবে এক বছরের বিদ্যুৎ বিল ফ্রি পাওয়ায় তিনি খুবই খুশি হয়েছেন।

উল্লেখ্য, এক বছরের বিদ্যুৎ বিল ছাড়াও ডিজিটাল ক্যাম্পেইনের আওতায় দেশের যেকোনো ওয়ালটন প্লাজা বা পরিবেশক শোরুম থেকে এসি কিনে ক্রেতারা পেতে পারেন সর্বোচ্চ এক লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচারসহ মোটরসাইকেল, ল্যাপটপ, ফ্রিজ, টিভিসহ অসংখ্য হোম ও ইলেকট্রিক্যাল অ্যাপ্লায়েন্সেস ফ্রি।

অন্যদিকে, ‘এসি এক্সচেঞ্জ’ অফারের আওতায় ওয়ালটন প্লাজা ও শোরুমে যেকোনো ব্র্যান্ডের ব্যবহৃত পুরাতন এসি জমা দিয়ে ক্রেতারা ওয়ালটনের নতুন এসি কিনতে পারছেন। এক্ষেত্রে পুরনো এসি জমা দিলে গ্রাহক তার পছন্দকৃত নতুন ওয়ালটন এসির মূল্য থেকে ২৫ শতাংশ ছাড় পাচ্ছেন।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/৪ এপ্রিল ২০১৯/অগাস্টিন সুজন/ইভা

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন