ঢাকা     মঙ্গলবার   ০৪ আগস্ট ২০২০ ||  শ্রাবণ ১৯ ১৪২৭ ||  ১৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

risingbd-august-banner-970x90

ওয়ালটন ফ্রিজ কিনে নতুন গাড়ি পেলেন জামালপুরের দোকানি জয়নাল

|| রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১০:৫৮, ৩০ মে ২০১৯  
জামালপুরের মনোহারি দোকানদার মো. জয়নাল আবেদিন জয় এবং তার স্ত্রীর হাতে ওয়ালটন ফ্রিজ কিনে পাওয়া নতুন গাড়ির চাবি তুলে দেয়া হচ্ছে। ছবি: সৈয়দ রাজীব।

জামালপুরের মনোহারি দোকানদার মো. জয়নাল আবেদিন জয় এবং তার স্ত্রীর হাতে ওয়ালটন ফ্রিজ কিনে পাওয়া নতুন গাড়ির চাবি তুলে দেয়া হচ্ছে। ছবি: সৈয়দ রাজীব।

এম মাহফুজুর রহমান : ওয়ালটন ফ্রিজ কিনে এবার নতুন গাড়ি পেলেন জামালপুর জেলার মাদারগঞ্জ উপজেলার মনোহারি দোকানদার মো. জয়নাল আবেদিন জয়। ডিজিটাল ক্যাম্পেইন সিজন-৪ এর আওতায় এসি কিনে নতুন গাড়ি পেলেন তিনি। নতুন গাড়ি ফ্রি পেয়ে আনন্দ যেন আর ধরে না রশিদপুরের এই দোকানদারের।

ওয়ালটন সূত্রে জানা গেছে, চলমান ডিজিটাল ক্যাম্পেইন সিজন-৪ এর আওতায় ফ্রিজ কিনে ডিজিটাল পদ্ধতিতে রেজিস্ট্রেশন করলেই ক্রেতারা পাচ্ছেন নতুন গাড়ি, ফ্রিজ, টিভি ও এয়ার কন্ডিশনারসহ অসংখ্য পণ্য ফ্রি। আছে কোটি কোটি টাকার নিশ্চিত ক্যাশ ভাউচারও।

গত ২৮ মে মাদারগঞ্জের বালিজুরি বাজারের ওয়ালটন পণ্যের পরিবেশক শোরুম ‘সেবা ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক্স’ আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে জয়নালের কাছে নতুন গাড়ি হস্তান্তর করা হয়। তার হাতে গাড়ির চাবি তুলে দেন ওয়ালটনের ডেপুটি ডিরেক্টর মো. মিরাজুল হক মিনা, পুলিশের ময়মনসিংহ রেঞ্জের এএসপি মো. সামিউল আলম, ‘সেবা ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক্স’ এর স্বত্বাধিকারী মো মোস্তাফিজুর রহমান, ওয়ালটনের এরিয়া ম্যানেজার রেজওয়ানুর রহমান চৌধুরী এবং অ্যাসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর নাজমুল হোসাইন ইভান।

গাড়ি পাওয়ায় যারপরনাই খুশি স্থানীয় মাদারগঞ্জ পৌরসভার রশিদপুরের জয়নাল আবেদিন জয় রাইজিংবিডিকে বলেন, গত ২৫ মে ‘সেবা ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক্স’ থেকে ২৪,৮০০ টাকা দিয়ে ১১ সিএফটির ফ্রিজ কিনি। ফ্রিজটি কিনে রেজিস্ট্রেশন করলেই গাড়ি পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হই। দোকানের জন্য একটি ফ্রিজ প্রয়োজন ছিলো। কিন্তু সেই ফ্রিজ কিনে যে নতুন গাড়ি পেয়ে যাব, তা স্বপ্নেও ভাবি নাই। ড্রাইভিং শিখে গাড়িটি আমি নিজেই চালাবো।

ওয়ালটন ফ্রিজ কিনে নতুন গাড়ি পেয়ে বিজয়চিহ্ন দেখাচ্ছেন মো. জয়নাল আবেদিন জয়


তিনি আরো বলেন, আমাদের এলাকার প্রায় প্রত্যেক ঘরেই ওয়ালটনের কোনো না কোনো পণ্য পাওয়া যায়। ওয়ালটন দেশীয় পণ্য হিসেবে অনেক ভালো মানের। আর দামেও সাশ্রয়ী। তাই এলাকার লোকজনের ঘরে এখন শুধুই ওয়ালটন পণ্য।

‘সেবা ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক্স’ এর ম্যানেজার মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘ক্যাম্পেইন শুরু পর থেকে এখানে ক্রেতাদের মধ্যে ব্যাপক সাড়া পাওয়া যাচ্ছে। সবচেয়ে বেশি বিক্রি হওয়া পণ্যের মধ্যে রয়েছে ফ্রিজ এবং এসি।’

জানা গেছে, ওয়ালটন ফ্রিজ কিনে এ সিজনে নতুন গাড়ি পেয়েছেন আরো বেশ কয়েকজন ক্রেতা। তাদের মধ্যে রয়েছেন কিশোরগঞ্জের বর্ডার গার্ড বাংলাদেশে (বিজিবি) সদস্য আব্দুল মমিন বাচ্চু ও নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলার বাসিন্দা মো. মহিন উদ্দিন। এছাড়া, ওয়ালটন টিভি কিনে গাড়ি পেয়েছেন ঢাকার নারী উদ্যোক্তা তানিয়া মেসবাহ।

উপলক্ষে, বিক্রয়োত্তর সেবা অনলাইনের আওতায় আনার লক্ষ্যে সারা দেশে এই ক্যাম্পেইন চালাচ্ছে দেশীয় ব্র্যান্ড ওয়ালটন। দেশের যেকোনো শোরুম থেকে ফ্রিজ কিনে মোবাইল নম্বর দিয়ে পণ্যটি রেজিস্ট্রেশন করবেন ক্রেতা। এরপর ফিরতি এসএমএস-এ ক্রেতাকে নতুন গাড়ি, ফ্রি পণ্য অথবা ক্যাশ ভাউচারের অংক জানিয়ে দেওয়া হচ্ছে।




রাইজিংবিডি/ঢাকা/৩০ মে ২০১৯/মাহফুজুর/অগাস্টিন সুজন/সাইফ

রাইজিংবিডি.কম

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়