ঢাকা     বুধবার   ০৫ আগস্ট ২০২০ ||  শ্রাবণ ২০ ১৪২৭ ||  ১৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

risingbd-august-banner-970x90

১৬ হাজারে ফ্রিজ কিনে লাখ টাকা পেলেন ছাতকের জলিল

279 || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৪:৫৬, ১৯ মার্চ ২০২০  

সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার লাকেশ্বর গ্রামের ব্যবসায়ী মো. আব্দুল জলিল। মেয়ের বিয়েতে উপঢৌকন দিতে গত ২৬ ফেব্রুয়ারি ওয়ালটনের একটি ফ্রিজ কেনেন তিনি। ১৬ হাজার ৫০০ টাকায় WFD-1B6 মডেলের এ ফ্রিজ কিনে তিনি জিতেছেন ১ লাখ টাকার গিফট ভাউচার।

বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) বিকেলে সিলেট নগরের লালদিঘীর পাড়ে মেসার্স হাজী মো. আব্দুস সবুর ডিলার পয়েন্টে আনুষ্ঠানিকভাবে তার হাতে গিফট ভাউচার তুলে দেওয়া হয়।

গিফট ভাউচার জিতলেও এ অফার সম্পর্কে আগে জানতেন না আব্দুল জলিল। তাই শুরুতে বিশ্বাস হচ্ছিল না তার। পরে ওয়ালটনের তালতলা প্লাজার আওতাধীন মেসার্স হাজী মো. আব্দুস সবুর ডিলার পয়েন্টের স্বত্বাধিকারী মো. হাসান আহমদ তাকে আউটলেটে আসতে বলেন। সেখানে আসার পর তার বিশ্বাস হয় যে, তিনি সত‌্যি সত‌্যিই ১ লাখ টাকার গিফট ভাউচার জিতেছেন।

আব্দুল জলিল বলেন, ‘ওয়ালটন দেশীয় ব্র‌্যান্ড। আগেও ওয়ালটনের একটি ফ্রিজ ব্যবহার করেছি। সেটার সার্ভিস ভালো। এজন্য আবারও ওয়ালটন ফ্রিজ কিনেছি। তবে লাখ টাকা পাব, তা বিশ্বাস করতে পারিনি। গিফট ভাউচার পেয়ে খুব খুশি হয়েছি।’

উৎসবমুখর পরিবেশে ক্যাশ ভাউচার হস্তান্তরের পরিকল্পনা থাকলেও করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে সংক্ষিপ্ত আয়োজনে আব্দুল জলিলের হাতে ভাউচার তুলে দেন ওয়ালটনের কর্মকর্তারা। গিফট ভাউচার পেয়ে ওয়ালটন কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানান আব্দুল জলিল।

ভাউচার হস্তান্তর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন—ওয়ালটন গ্রুপের প্লাজা বিক্রয় ও উন্নয়ন বিভাগ-৬ এর বিভাগীয় প্রধান ওয়াহিদুজ্জামান তানভীর, সিলেট জোনের এরিয়া ম্যানেজার মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন, সিলেট সার্ভিস সেন্টারের ব্র‌্যাঞ্চ ম্যানেজার ওয়ালিউর রহমান, সিলেট সিপি ইনচার্জ মো. ওয়াসিম উদ্দিন, জিন্দাবাজার প্লাজার ব‌্যবস্থাপক মো. জুয়েল রানা, তালতলা প্লাজার ব‌্যবস্থাপক মো. জহিরুল ইসলাম, স্টেশন রোড প্লাজার ব‌্যবস্থাপক মো. আজিজুর রহমান, সুবিদবাজার প্লাজার ব‌্যবস্থাপক আবুল হাসান, আম্বরখানা প্লাজার ব‌্যবস্থাপক মো. খুরশেদ আলম, মদিনা মার্কেট প্লাজার ব‌্যবস্থাপক কেশব দাস রাজ, ইসলামপুর প্লাজার ব‌্যবস্থাপক আল-আমিন, সুবহানীঘাট প্লাজার ব‌্যবস্থাপক সুজন কর্মকার, সিলেটে রাইজিংবিডির নিজস্ব প্রতিবেদক আব্দুল্লাহ আল নোমান প্রমুখ।

অনলাইনে গ্রাহকদের দ্রুত ও সর্বোত্তম বিক্রয়োত্তর সেবা দিতে ডিজিটাল ডাটাবেজ তৈরি করছে ওয়ালটন। এর মাধ্যমে ক্রেতাদের নাম, ফোন নম্বর এবং ক্রয়কৃত পণ্যের মডেল নম্বরসহ বিস্তারিত তথ্য ওয়ালটনের সার্ভারে সংরক্ষণ করা হচ্ছে। ফলে ওয়ারেন্টি কার্ড হারিয়ে গেলেও গ্রাহকরা দেশের যেকোনো ওয়ালটন সার্ভিস সেন্টার থেকে সহজে কাঙ্ক্ষিত সেবা নিতে পারছেন। এ কার্যক্রমে ক্রেতাদের উদ্বুদ্ধ করতে ডিজিটাল ক্যাম্পেইনে ফ্রিজ, টেলিভিশন, এসির ক্রেতাদের প্রতিদিনই ৩৫ লাখ টাকা জেতার সুযোগসহ নিশ্চিত ক্যাশব্যাক দেওয়া হচ্ছে।


সিলেট/নোমান/রফিক

রাইজিংবিডি.কম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়