ঢাকা, সোমবার, ৭ শ্রাবণ ১৪২৬, ২২ জুলাই ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

‘নিজের সঙ্গে যুদ্ধ জিততে হয়’

ইয়াসিন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৬-১৮ ৩:৩৬:১২ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৬-১৮ ৪:৫৪:১১ পিএম
‘নিজের সঙ্গে যুদ্ধ জিততে হয়’
Voice Control HD Smart LED

টনটন থেকে ক্রীড়া প্রতিবেদক: মানসিক জোর দৃঢ় থাকলে কতোটা সফল হওয়া যায় তা সাকিবকে দেখলেই বোঝা যায়।

বিশ্বকাপে একের পর এক কারিশমা দেখিয়ে যাচ্ছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। ব্যাটিংয়ে সর্বোচ্চ রান, বোলিংয়ে ৫ উইকেট। হাতে আছে আরও চারটি ম্যাচ।  কোথায় গিয়ে পৌঁছতে চান সাকিব সেটা জানেন না নিজেও।  তবে যে ধারাবাহিকতায় আছেন তা ধরে রাখতে চান বিশ্বকাপের শেষ পর্যন্ত।

‘এই মুহূর্তে আমি ব্যাটিং, বোলিং ও নেতৃত্ব দিয়ে দলের অবদান রাখার চেষ্টা করছি। আমি এ ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে চাই। আরও চারটি ম্যাচ আছে। আমরা সেমিফাইনাল খেলতে চাই। সেমিফাইনাল খেতে হলে আমাদের সেরা ক্রিকেট খেলতে হবে পাশাপাশি আমাদেরকে প্রত্যেককে অবদান রাখতে হবে। এখন ভালো করছি। সামনেও ভালো করবো সেটাও নিশ্চিত করতে হবে।’ – বলেছেন সাকিব।

বিশ্বকাপের আগে সাকিব নিজের সঙ্গে করেছেন যুদ্ধ।  দল যখন অনুশীলনে তখন সাকিব আইপিএলে ব্যস্ত।  ওখানেও সুযোগ হচ্ছিল না। ম্যাচের পর ম্যাচ ছিলেন বাইরে।  তবে বসে থাকেননি। নিজের ফিটনেস নিয়ে কাজ করেছেন। শরীরের ওজন কমিয়েছেন।  হয়েছেন ঝরঝরে।  শৈশবের গুরু মোহাম্মদ সালাউদ্দিনকে উড়িয়ে নিয়েছিলেন ভারতে। সেখানে ব্যাটিং নিয়ে নিয়ে কাজ করেছিলেন।  ইংল্যান্ড কন্ডিশনে কিভাবে ব্যাটিং করতে হবে, শর্ট বল কিভাবে সামলাতে হবে তা নিয়ে দিনের পর দিন পরিশ্রম করেছেন।  বাঁহাতি ব্যাটসম্যান ব্যাটিং নিয়ে কঠোর পরিশ্রমের ফল পাচ্ছেন তিনি।

‘আমি ব্যাটিং নিয়ে গত দেড় মাস ধরে কাজ করেছি। তারই ফল পাচ্ছি। রানের কথা যদি চিন্তা করি তাহলে সর্বোচ্চ পর্যায়ে আছি।  এর আগেও কয়েকবার ভালো অবস্থানে ছিলাম। কিন্তু এর মানে এই না যে ভালো অবস্থানে থেকে বড় স্কোর করবো। ভালো অবস্থানে থেকেও বেশি রান করা সম্ভব হয় না। সব মিলিয়ে আছি ভালো অবস্থানে। সেটা ধরে রাখার চেষ্টা করবো।’ – যোগ করেন সাকিব।

টানা অনুশীলনে নিজের প্রস্তুতি শতভাগ নেওয়া যায়।  তবে মাঠের ক্রিকেট খেলতে হয় মানসিক জোর দিয়ে।  নিজের সঙ্গে যুদ্ধে না জিতলে প্রতিপক্ষকে হারানো যায় না। তাই সব সময় নিজের সঙ্গে জিততে হয়। এমন ভাবনা বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের।

‘ক্রিকেটে মানসিক অবস্থানটা খুব গুরুত্বপূর্ণ।  এ রকম পরিবেশ-পরিস্থিতিতে এসে আসলে মানসিকভাবে শক্ত থাকাটাই সবচেয়ে বেশি কাজে দেয়। যত বেশি মানসিকভাবে শক্ত থাকা যায় এবং মনে সাহস রাখা যায়, ব্যাটিং কিংবা বোলিংয়ে সেগুলোই সহায়তা করে। আসলে যুদ্ধটা হয় নিজের সঙ্গে নিজের।  ভেতরে ভেতরে হেরে গেলে সফল হওয়ার সম্ভাবনা থাকে না। যদি মন থেকে নিজেকে বলেন যে ‘আমি জিতছি, আমি জিতছি’; তাহলে সম্ভব। হয়তো সব সময় হবে না। তবে বেশির ভাগ সময়ই হবে।’ – বলেছেন সাকিব।

সাকিব হাসছেন। পারফর্ম করছেন। সেরা সময় কাটাচ্ছেন।  ব্যাট-বলের দাপটে হচ্ছেন ম্যাচসেরা।  বিশ্বকাপের দুটি ম্যাচে দুটিতেই হয়েছেন ম্যাচসেরা।  এমনই থাকুক সাকিব।  সাকিব ২২ গজে হাসলে হাসবে বাংলাদেশও।



রাইজিংবিডি/টনটন/১৮ জুন ২০১৯/ইয়াসিন

Walton AC
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       

Walton AC
Marcel Fridge