ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০২ জুন ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

হাটহাজারীতে সবজি চাষিদের মুখে হাসি

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৫-০৭ ১১:৪০:০২ এএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৫-০৭ ১১:৪০:০২ এএম

করোনা পরিস্থিতিতে দেশের সর্বত্রই অসহায় দরিদ্র মানুষের কাছে পৌঁছানো হচ্ছে সরকারি ত্রাণ। তবে সারাদেশের চেয়ে চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার ত্রাণচিত্র একটু ভিন্ন।

এই উপজেলার ত্রাণ সহায়তায় চাল, ডাল, তেলের সাথে রয়েছে বিভিন্ন রকম সবজিও।

মূলত সঙ্কটময় সময়ে সবজি চাষিদের মুখে হাসি ফোটাতেই এই ব্যতিক্রমী উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: রুহুল আমীন।

উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে কৃষকের মাঠ থেকেই সবজি কিনছেন ইউএনও। আর এসব সবজি সমানভাবে ভাগ করে অসহায়দ দরিদ্র মানুষের হাতে ভালোবাসার উপহার হিসেবে বিনামূল্যে তুলে দেওয়া হচ্ছে।

হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রুহুল আমিন বলেন, ‘সরকার উপজেলা প্রশাসনের মাধ্যমে দিনমজুরদের জন্য চাল সহায়তার পাশাপাশি নগদ সহায়তাও দিয়ে থাকে। এই নগদ অর্থ দিয়ে দিনমজুরদের ডাল, পেঁয়াজ, তেলসহ বিভিন্ন নিত্যপণ্য কিনে দেয়া হতো। এবার এই নগদ সহায়তার অর্থ দিয়ে তেল ডালের পাশাপাশি মাঠ থেকে ফ্রেশ সবজি কিনে দেয়া হচ্ছে। এছাড়া হতদরিদ্র নিম্ন আয়ের মানুষের মধ্যে এসব সবজি বিনামূল্যে উপহার হিসেবে বিতরণ করা হচ্ছে ‘ভালোবাসার থলে’ হিসেবে।'

তিনি বলেন, ‘সরাসরি চাষিদের মাঠ থেকে নগদ টাকায় এসব সবজি কেনা হচ্ছে বাজার মূল্য দিয়ে। এর ফলে চাষিরা তাদের উৎপাদিত সবজি সহজে ন্যায্য দামে বিক্রির সুযোগ পাচ্ছে।'

এই কার্যক্রম পুরো রমজান মাসজুড়ে অব্যাহত থাকবে বলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জানান।

হাটহাজারী উপজেলার ধলই ইউনিয়নের করলা সবজি চাষি সাদেক মুন্সি জানান, প্রায় এক কানি জমিতে করলা চাষ করেছেন তিনি। একই সাথে রয়েছে ঢেঁড়শ ও মিষ্টি কুমড়ার চাষ। এবার ফলনও হয়েছে ভালো। কিন্তু বাজারে নিয়ে বিক্রি করার এই সময়ে বাজার বন্ধ। পাইকাররা আসছেন না। উপযুক্ত মূল্যে এসব সবজি বিক্রির সুযোগ পাচ্ছিলেন না। বড় অংকের লোকসান দেয়ার এই মুহুর্তে এগিয়ে এসেছেন হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল আমিন। তিনি সরাসরি মাঠ থেকেই উপযুক্ত দাম দিয়ে নগদ টাকায় এই সবজি কিনে নিয়ে যাচ্ছেন। এর মাধ্যমে কোন ঝামেলা ছাড়াই সবজি বিক্রি করে হাতে নগদ অর্থ পেয়ে স্বস্তির কথা জানান এই কৃষক।

সবজি বিক্রি করে নিজের সন্তোষের কথা জানান, হাটহাজারীর চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার সবজি চাষি হারুন, মোতালেব, কোরবান আলীসহ আরো অনেকে। মাঠ থেকেই ঢেড়শ, লাল শাক, ঝিঙ্গা, চিচিঙ্গা, লাউ, বেগুন, মিষ্টি কুমড়া, মরিচসহ নানা ধরনের সবজি। দামও পাচ্ছেন উপযুক্ত। চাষিদের মুখে হাসি রেখেই উপজেলা প্রশাসন সবজি কিনছে বলে জানিয়েছেন উপজেলার কৃষকরা।

হাটহাজারী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শেখ আবদুল্লাহ ওয়াহেদ জানান,  এ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে চলতি মৌসুমে প্রায় পাঁচ হাজার হেক্টর জমিতে বিভিন্ন ধরনের সবজির চাষাবাদ হয়েছে। এই সবজির মধ্যে রয়েছে ঢেঁড়শ, কাঁকরোল, ঝিঙ্গা, চিচিঙ্গা, লাউ, বেগুন, মিষ্টি কুমড়া, মরিচসহ নানা ধরনের সবজি। এবার ফলনও হয়েছে সন্তোষজনক। স্থানীয় চাহিদা পূরণ করে এসব সবজি শহরের বিভিন্ন বাজারে সরবরাহ হয়। পাইকাররা এসে কিনে নিয়ে যান। কিন্তু চলমান বন্ধ পরিস্থিতিতে কৃষকরা তাদের ফসল উপযুক্ত দামে বিক্রির সুযোগ পাচ্ছিলেন না। এই অবস্থায় কৃষকদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে উপজেলা প্রশাসন। কৃষকের মাঠ থেকেই নগদ টাকায় সবজি কিনে সেগুলো হতদরিদ্র মানুষের মধ্যে  উপজেলা প্রশাসন ও প্রধানমন্ত্রীর ভালোবাসার উপহার হিসেবে বিতরণ করা হচ্ছে।

 

চট্টগ্রাম/ রেজাউল/টিপু