ঢাকা, শুক্রবার, ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০৫ জুন ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

দিনাজপুরে আমের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা

মোসলেম উদ্দিন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৫-১১ ১১:৩৬:০৪ এএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৫-১১ ১১:৩৬:০৪ এএম

দিনাজপুরের মাঠে-ঘাটে, রাস্তার পাশে ও আম বাগানে সর্বত্র আমের গাছে ঝুলছে সবুজ রঙের আমের গুটি।

অন্য বারের চেয়ে এবার আমের ফলন অনেক ভাল দেখা যাচ্ছে। মে মাসের অর্থাৎ এ মাসের শেষের দিকে এসব আম পাকবে বলে জানিয়েছেন কৃষি কর্মকর্তারা।

ঘোড়াঘাট উসমানপুরের আম চাষি রবিউল ইসলাম জানান, ৬০ বিঘা জমিতে তার আমের বাগান।

তিনি বলেন, ‘বাপ-দাদার আমল থেকে পর্যায়ক্রমে এই বাগানে আমরা আম চাষ করে আসছি।বাগানে প্রায় ৯৫০ টি আম গাছ রয়েছে। বাগানে হিমসাগর, ন্যাংড়া গুটি, ফজলি, আমরুপালি, হাড়িভাঙা, নাগফজলি ও রুপালি জাতের আমগাছ আছে। প্রতিবছর আমরা এই বাগান ডাকের মাধ্যমে বাগান ব্যবসায়ীদের কাছে বাগানের আম বিক্রি করে থাকি। গত বছর এই বাগান ৩ লাখ টাকা ডাক হয়েছিল।'

এ বছর তার এই বাগানের ডাক আরো বাড়বে বলে আশা করছেন তিনি।

ঘোড়াঘাট উপজেলা কৃষি অফিসার এখলাস হোসেন জানান, উপজেলায় ১৫৩ হেক্টর জমিতে ২৫০ টি আম বাগান রয়েছে।

নবাবগঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিসার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, গত বছরের চেয়ে এবছর নবাবগঞ্জে অনেক আমের গাছসহ নতুন বাগান তৈরি হয়েছে। এবার উপজেলায় ৮০৫ হেক্টর জমির উপর অনেক আমগাছ ও বাগান হয়েছে।

দিনাজপুর জেলা কৃষি অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক তৌহিদুল ইকবাল বলেন, ‘জেলার ১৩ টি উপজেলার প্রতিটি আম গাছে এবং বাগানে আমের ভাল ফলন হয়েছে। যদি কোন প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হয় তাহলে আশা করছি এবার আমচাষিরা আমের ভাল ফলন পাবে এবং লাভবান হবে।'

হাকিমপুর উপজেলা কৃষি অফিসার শামীমা নাজনীন বলেন, ‘এবার আম মৌসুমে উপজেলায় ৪৭ হেক্টর জমিতে ১৪৭ টি আমের বাগান রয়েছে। গাছে মুকুল আসার পর থেকে আমচাষিদের আমরা বিভিন্ন পরামর্শ দিয়ে আসছি। প্রতিটি আমগাছে আমের ভাল ফলন দেখা যাচ্ছে। ঝড় বা শিলাবৃস্টি না হলে এবছর আমের ফলন ভাল হবে। আশা করছি, এমাসের শেষের দিকে অনেক গাছে আম পাকা শুরু হবে।'

 

হিলি (দিনাজপুর)/টিপু