ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৬ ভাদ্র ১৪২৬, ২২ আগস্ট ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য প্রস্তুত ট্রাম্প

রাসেল পারভেজ : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৮-০১-২৫ ৪:২২:৪৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০১-২৫ ৮:০১:০১ পিএম
জিজ্ঞাসাবাদের জন্য প্রস্তুত ট্রাম্প
Walton E-plaza

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এই প্রথমবার বললেন, ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপ ইস্যুতে যে তদন্ত চলছে, তাতে তিনিও জিজ্ঞাবাদের জন্য প্রস্তুত।

ট্রাম্প জানিয়েছেন, বিষয়টি নিয়ে তিনি এগোতে চাইছেন। হয়তো এমনটিই পরমার্শ দিয়েছে তার আইনজীবীরা।

তদন্তকারীরা খতিয়ে দেখছেন, নির্বাচনে বিজয়ের জন্য ট্রাম্পের পক্ষে প্রভাব বিস্তার করতে রাশিয়ার সঙ্গে ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারশিবির আঁতাত করেছিল কিনা। তবে এ অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছেন ট্রাম্প ও রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সম্প্রদায় এরই মধ্যে সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছে যে, ট্রাম্পের সমর্থনে নির্বাচনকে প্রভাবিত করতে চেষ্টা করেছে মস্কো। এ বিষয়ে ট্রাম্পকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে- এমন খবর ছড়িয়ে পড়ার পর ট্রাম্প তিনি বলেছিলেন, যেহেতু কোনো আঁতাতই হয়নি, সেহেতু সাক্ষাৎকার বা জিজ্ঞাসাবাদের কোনো প্রশ্নই নেই। এর আগে রাশিয়ার হস্তক্ষেপ ইস্যুতে তদন্তকে তিনি ‘ভূতুড়ে’ ও ‘গুজব’ বলে অভিহিত করেছিলেন।

স্থানীয় সময় বুধবার হোয়াইট হাউসে কথা বলার সময় ট্রাম্প বলেন, শপথের মাধ্যমে শীর্ষ গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের প্রশ্নের মুখোমুখি হতে ‘সত্যিই’ প্রস্তুত তিনি। ট্রাম্প বলেন, মোটের ওপর কোনো আঁতাত হয়নি, এ নিয়ে কোনো বাধাও নেই।’

ট্রাম্পকে কীভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে?
সম্ভাব্য জিজ্ঞাসাবাদ কেমন ও কী ধরনের হবে, তা নিয়ে বিচার বিভাগের বিশেষ কাউন্সেল রবার্ট মুয়েলারের নেতৃত্বাধীন তদন্তদলের সঙ্গে কথা বলছেন ট্রাম্পের আইনজীবীরা। ট্রাম্পকে মুখোমুখি প্রশ্ন করা হতে পারে অথবা লিখিত আকারেও প্রশ্নের উত্তর চাওয়া হতে পারে অথবা উভয় পদ্ধতিতেই জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে তাকে।

কবে নাগাদ জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে- এ বিষয়ে ট্রাম্প বলেন, ‘গতকাল (মঙ্গলবার) তারা দুই-তিন সপ্তাহের বিষয়ে আলোচনা করেছেন।’ মুয়েলার কি স্বচ্ছতা রাখবেন- জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমরা খতিয়ে দেখছি... আশা করি, তাই হবে।’

তদন্তের সাম্প্রতিক অবস্থা কী?
মুয়েলারের তদন্তদল যুক্তরাষ্ট্রের অ্যাটর্নি জেনারেল জেফ সেশনসকে গত সপ্তাহে কয়েক ঘণ্টা ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। সম্ভবত যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ এই আইন কর্মকর্তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা-ই ট্রাম্প কেবিনেটের মধ্যে প্রথম কাউকে জিজ্ঞাসাবাদ করার ঘটনা।

এ ছাড়া মুয়েলারের তদন্তের অংশ হিসেবে ইতিমধ্যে চার ব্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ট্রাম্পের প্রাক্তন উপদেষ্টা মাইকেল ফ্লিন স্বীকার করেছেন, তিনি রাশিয়ার রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে বৈঠক করলেও বিষয়টি গোপন রাখতে মিথ্যা বলেছিলেন।

ট্রাম্পের ক্যাম্পেইন ম্যানেজার ম্যানাফোর্টের বিরুদ্ধে ১২টি অভিযোগ আনা হয়েছে। ইউক্রেনের সঙ্গে চুক্তি নিয়ে প্রতারণা ও অর্থ পাচারের অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। ম্যানাফোর্টের ব্যবসায়ী সহযোগী রিক গেটস অর্থ পাচারের ষড়যন্ত্রের সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে অভিযুক্ত হয়েছেন। ট্রাম্প ক্যাম্পেইনের তৃতীয় ম্যানেজার জর্জ পাপাডোপৌলাস এফবিআইয়ের কাছে মিথ্যা বলার বিষয়টি স্বীকার করেছেন।

তথ্যসূত্র : বিবিসি অনলাইন




রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৫ জানুয়ারি ২০১৮/রাসেল পারভেজ

Walton AC
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       

Walton AC
Marcel Fridge