ঢাকা, শুক্রবার, ৫ আশ্বিন ১৪২৬, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:
ডাম্পিং ৫০ হাজার

চট্টগ্রামে হাজার হাজার কোরবানির চামড়া পরিত্যক্ত

রেজাউল করিম : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৮-১৪ ১২:০৪:০২ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৮-১৪ ৮:২৩:৫৮ পিএম
চট্টগ্রামে হাজার হাজার কোরবানির চামড়া পরিত্যক্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম : চট্টগ্রামে অবিক্রিত হাজার হাজার কোরবানির গরু, মহিষ ও ছাগলের চামড়া পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে আছে বিভিন্ন সড়কের পাশে এবং ডাস্টবিনে। এক সময়ের মূল্যবান এই রপ্তানি পণ্যটি এখন বর্জ্য পদার্থ হিসেবে পরিষ্কারে নেমেছে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন।

পবিত্র কোরবানি শেষে পশুর বর্জ্য অপসারণে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন সাফল্য দেখালেও কোরবানির চামড়া বর্জ্য হিসেবে অপসারণ করতে গিয়ে নতুন চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে। এদিকে পরিত্যক্ত চামড়ার কারণে নগরীর মুরাদপুর, আতুড়ার ডিপু এলাকার পরিবেশ রীতিমত বিষাক্ত হয়ে উঠেছে। চরম দুর্গন্ধে এসব এলাকা দিয়ে চলাচল করাও দায় হয়ে পড়েছে।

বুধবার নগরীর প্রধান চামড়ার আড়ত মুরাদপুর আতুরার ডিপু এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, সেখানে চামড়া বিক্রি করতে না পেরে হাজার হাজার চামড়া ফেলে গেছে মৌসুমি চামড়া ব্যবসায়ীরা। মঙ্গলবার সন্ধ্যা পর্যন্ত চামড়া বিক্রিতে ব্যর্থ হয়ে গ্রামাঞ্চল থেকে নিয়ে আসা এসব চামড়া ফেলে যেতে বাধ্য হয় তারা। লাখ লাখ টাকা দিয়ে কিনে আনা এসব চামড়া এখন বর্জ্য। চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন মঙ্গলবার বিকেল থেকেই পরিত্যক্ত অবস্থায় রাস্তার পাশে ফেলে রেখে যাওয়া চামড়া অপসারণে কাজ করছে।

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা শফিকুল মান্নান সিদ্দিকী রাইজিংবিডিকে জানান, কোরবানির দিনেই আমরা পুরো মহানগরীর কোরবানির পশুর বর্জ্য অপসারণ করেছি। কিন্তু একদিন পরেই নতুন চ্যালেঞ্জ হিসেবে দেখা দিয়েছে অবিক্রিত এবং পরিত্যক্ত কোরবানির পশুর চামড়া। বিক্রি করতে না পেরে হাজার হাজার চামড়া রাস্তার পাশে ফেলে চলে গেছেন ব্যবসায়ীরা। এসব চামড়া বর্জ্য হিসেবে অপসারণ করা হচ্ছে জানিয়ে শফিকুল মান্নান বলেন, ‘বুধবার সকাল পর্যন্ত চট্টগ্রামের বিভিন্ন এলাকা থেকে ৫০ হাজারেরও বেশি পশুর চামড়া ডাম্পিং করা হয়েছে। এছাড়া নগরীর বিভিন্ন এলাকায় এখনো পরিত্যক্ত অবস্থায় থাকা চামড়া অপসারণ ও ডাম্পিং-এর কাজ চলছে। সিটি করপোরেশনের তিন হাজারেরও বেশি পরিচ্ছন্ন কর্মী এসব চামড়া সরিয়ে নিতে এবং শহরকে পরিচ্ছন্ন করতে কাজ করে যাচ্ছে।’

চট্টগ্রাম কাঁচা চামড়া আড়তদার সমিতির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আবদুল কাদের রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘চট্টগ্রামের চামড়া ব্যবসায়ীরা মূলত ঢাকার ট্যানারি মালিকদের হাতে জিম্মি। ট্যানারি মালিকরা চট্টগ্রামের ব্যবসায়ীদের সমস্ত পুঁজি আটকে রেখেছে। ফলে ব্যবসায়ীরা এবার চামড়া কিনতে পারেনি। এ ছাড়া যেসব চামড়া ইতোমধ্যে কেনা হয়েছে, তা সংরক্ষণের জন্য লবণ কেনার টাকাও নেই ব্যবসায়ীদের।’

এবার চট্টগ্রাম থেকে ৫ লাখ চামড়া সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা থাকলেও কী পরিমাণ চামড়া সংগ্রহ হয়েছে সে ব্যাপারে কোনো তথ্য দিতে পারেন নি আবদুল কাদের।

 

রাইজিংবিডি/চট্টগ্রাম/১৪ আগস্ট ২০১৯/রেজাউল/হাকিম মাহি

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন