ঢাকা, রবিবার, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ৩১ মে ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

বাগেরহাটে বেড়িবাঁধে ফের ভাঙন

বাগেরহাট সংবাদদাতা : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৫-১০ ৪:১২:৩২ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৫-১০ ৬:৪৮:০০ পিএম
ভাঙনকবলিত অংশ মেরামত করা হচ্ছে

পানি উন্নয়ন বোর্ডের ৩৫-১ পোল্ডারের বাগেরহাটের শরণখোলা অংশে দ্বিতীয় দফায় বেড়িবাঁধ ভেঙে নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে।

গত দুই দিনে শরণখোলা উপজেলার সাউথখালি ইউনিয়নের বলেশ্বর নদীর পাড়ের গাবতলা-বগী গ্রাম সংলগ্ন বাঁধের ১০০ মিটার নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যায়।

শুক্রবার (৮ মে) রাতে আকস্মিক ভাঙনের খবর পেয়ে উপজেলা প্রশাসন ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছান। লোকালয়ে যাতে পানি না ঢুকতে পারে সেজন্য শনিবার ভোররাত থেকে বেড়িবাঁধের (গ্রাম রক্ষা বাধ) মেরামত কাজ শুরু করা হয়।

তবে নদীশাসন না করে স্বল্প পরিসরের এই কাজে খুশি নয় এলাকাবাসী। নদীশাসন করে টেকসই  ও স্থায়ী বাঁধ নির্মাণের দাবি জানিয়েছন তারা। তা না হলে বগী ও গাবতলা গ্রামের বেশিরভাগ অংশ নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যাবে।

স্থানীয় খান শফি উদ্দিন ও জাকির হোসেন বলেন, প্রতি বছরই বগি ও গাবতলা এলাকায় পুরনো বাঁধ ভেঙে নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যায়। নদী খেয়ে ফেলে তাদের বাপ-দাদার ভিটে মাটি। এবারও শুরু হয়েছে ভাঙন। শুক্রবার ও শনিবার রাতে ভাঙনে প্রায় একশত মিটার বেড়িবাঁধ নদীতে বিলীন হয়ে গেছে। সঙ্গে কয়েক একর জমিও চলে গেছে নদীতে। পানি উন্নয়ন বোর্ড ও সিআইপি প্রকল্পের কর্মকর্তাদের তত্ত্বাবধায়নে রিং বেড়িবাঁধের কাজ শুরু হয়েছে। কিন্তু এটা স্থায়ী সমাধান নয়। নদী শাসন করে টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণের দাবি জানান তারা।

বাগেরহাট পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো.  নাহিদুজ্জামান খান বলেন, যাতে লোকালয়ে পানি ঢুকতে না পারে সেই জন্য কাজ শুরু করা হয়েছে। দু’-একদিনের মধ্যে বেড়িবাঁধের মেরামত কাজ শেষ হবে। জমি অধিগ্রহণ ও নদীশাসন সংক্রান্ত সমস্যার সমাধান করে ওই স্থানে টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণের আশ্বাস দেন তিনি।


টুটুল/বকুল

     
 

আরো খবর জানতে ক্লিক করুন : বাগেরহাট, খুলনা বিভাগ