ঢাকা, সোমবার, ৭ আশ্বিন ১৪২৬, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

বেভারেজ কুলার নিতে কোকা কোলা-ওয়ালটন চুক্তি

মিলটন আহমেদ : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৫-০৭ ৫:৩১:৫৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৫-০৮ ১০:৩৫:১৭ এএম
বেভারেজ কুলার নিতে কোকা কোলা-ওয়ালটন চুক্তি
কোকা কোলা ও ওয়ালটন চুক্তি অনুষ্ঠানে উভয় প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা

নিজস্ব প্রতিবেদক : ওয়ালটনের কাছ থেকে বিপুলসংখ্যক বেভারেজ কুলার নিচ্ছে বহুজাতিক কোম্পানি কোকা কোলা। কোকা-কোলার নিজস্ব বোতল প্রস্তুতকারী বহুজাতিক কোম্পানি ইন্টারন্যাশনাল বেভারেজেস প্রাইভেট লিমিটেড (আইবিপিএল) এবং ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের মধ্যে এ বিষয়ে চুক্তি সই হয়েছে। পণ্যের উচ্চমান নিশ্চিত হওয়ার পর কোকা কোলা ওয়ালটনের কাছ থেকে বেভারেজ কুলার নিচ্ছে।

সম্প্রতি ওয়ালটন করপোরেট অফিসে এই চুক্তি স্বাক্ষর হয়। নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন আইবিপিএল এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক তাপস কুমার মন্ডল এবং ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এসএম আশরাফুল আলম। এ উপলক্ষে ফিতা কেটে ওয়ালটন কারখানায় প্রস্তুতকৃত কোকা কোলার বেভারেজ কুলার এর উদ্বোধন এবং শুভেচ্ছা কেক কাটা হয়।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আইবিপিএলের পরিচালক (অপারেশন্স) সুপ্রতীম ঘোষ, ওয়ালটনের নির্বাহী পরিচালক ইভা রিজওয়ানা, এমদাদুল হক সরকার, নজরুল ইসলাম সরকার, এস এম জাহিদ হাসান, হুমায়ূন কবীর, মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম, উদয় হাকিম, গোলাম মুর্শেদ, আমিন খান, আন্তর্জাতিক বিজনেস ইউনিট (আইবিইউ) এর প্রেসিডেন্ট অ্যাডওয়ার্ড কিমসহ দুই প্রতিষ্ঠানের অন্যান্য কর্মকর্তারা।

ফিতা কেটে ওয়ালটন কারখানায় প্রস্তুতকৃত কোকা কোলার বেভারেজ কুলার এর উদ্বোধন করা হয়

জানা গেছে, কোকা-কোলার সাপ্লাইয়ার্স গাইডেন্স প্রিন্সিপাল (এসজিপি) অনুযায়ী ওয়ালটন তাদের পণ্যের উচ্চমান নিশ্চিত করে। এসজিপির সমস্ত শর্ত পূরণ করে ওয়ালটন এই বেভারেজ কুলার তৈরি করছে। গ্লোবাল স্টান্ডার্ড নিশ্চিত করার কারণেই আইবিপিএল তাদের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছে। 

ওয়ালটনের বেভারেজ কুলার উৎপাদন ইউনিট সর্বাধুনিক প্রযুক্তি, মেশিনারিজ ও অভিজ্ঞ প্রকৌশলীর সমন্বয়ে পরিচালিত হচ্ছে। দীর্ঘ সময় ধরে আইপিবিএল এর একটি প্রতিনিধিদল সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াটি পর্যবেক্ষণ করে এবং সামগ্রিক উৎপাদন প্রক্রিয়ায় তারা সন্তুষ্ট হন।

অনুষ্ঠানে ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এস এম আশরাফুল আলম বলেন, ২০১৯ সাল ওয়ালটনের জন্য নতুন মাইলফলক অর্জনের চ্যালেঞ্জিং ইয়ার। এ বছর স্থানীয় বাজারে ২০ লাখ ফ্রিজ বিক্রির টার্গেট নিয়েছে ওয়ালটন। পাশাপাশি বিশ্বের ইলেকট্রনিক্স পণ্যের বাজারে সেরা ব্র্যান্ড হওয়ার লক্ষ্যে নব উদ্যমে যাত্রা শুরু করেছে। সেই অগ্রযাত্রায় বিশ্বের অন্যতম বহুজাতিক কোম্পানি আইবিপিএলকে অংশীদার হিসেবে পেয়ে ওয়ালটন পরিবার আনন্দিত।

ওয়ালটনের সঙ্গে কোকা কোলার চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা কেক কাটছেন অতিথিরা


তিনি আরো বলেন, বিশ্বের ২০৬টি দেশে কোকা-কোলার কার্যক্রম আছে। আশা করি, তাদের সঙ্গে ব্যবসায়িক সম্পর্ক আরো দৃঢ় হবে এবং বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কোকা-কোলার জন্য বেভারেজ কুলার সরবরাহ করতে সক্ষম হবে ওয়ালটন।

আইপিবিএল, বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তাপস কুমার মন্ডল বলেন, এখন বাংলাদেশেই বিশ্বমানের পণ্য তৈরি হচ্ছে এবং এটি করে দেখাচ্ছে ওয়ালটন। আমরা অত্যন্ত আনন্দিত যে, এ ধরনের একটি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছি। আমরা বিশ্বাস করি, চুক্তিটির ফলে আমরা দেশের গ্রাহকদের উন্নত সেবা প্রদানের পাশাপাশি দেশের অর্থনীতিতেও অবদান রাখতে সক্ষম হবো।

ওয়ালটনের করপোরেট সেলস বিভাগের নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম জানান, ওয়ালটনের লক্ষ্য বিশ্বের সেরা গ্লোবাল ব্র্যান্ডে পরিণত হওয়া। কোকা কোলার সঙ্গে চুক্তির মাধ্যমে আমরা এক্ষেত্রে কিছুটা এগিয়ে গেলাম। আইপিবিএল এর সঙ্গে এই চুক্তি ওয়ালটনের জন্য একটি বড় সম্মান।


রাইজিংবিডি/ঢাকা/৭ মে ২০১৯/মিলটন আহমেদ/সাইফ

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন