ঢাকা, রবিবার, ৪ কার্তিক ১৪২৬, ২০ অক্টোবর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

নেপাল ঘুরে এলেন ওয়ালটন টিভির ২৩ ব্যবসায়ী

এম মাহফুজুর রহমান : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৭-২৯ ৫:৫৩:৪১ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৭-৩০ ৯:২৩:২৪ এএম

এম মাহফুজুর রহমান : টেলিভিশন বিক্রিতে ব্যাপক সাফল্য দেখাচ্ছেন দেশীয় ব্র্যান্ড ওয়ালটনের বিক্রয় প্রতিনিধি ও ব্যবসায়ীরা। আর তাদেরকে তাই পুরষ্কার দিতেও কার্পণ্য করেনি প্রতিষ্ঠানটি। ২৩ জন ব্যবসায়ীকে হিমালয়ের দেশ নেপাল ভ্রমণে পাঠিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

দেশব্যাপী চলছে ওয়ালটনের ডিজিটাল ক্যাম্পেইন সিজন ফোর। এই ক্যাম্পেইনে ব্যাপক প্রচার-প্রচারণার মাধ্যমে বছরজুড়ে বিক্রয় বৃদ্ধিতে বিশেষ অবদান রেখেছেন সাব-ডিলাররা। এর ফলে ওয়ালটন টিভি বিক্রিতে অসাধারণ সাফল্য অর্জিত হয়। এরই ধারাবাহিকতায় তাদেরকে নেপাল ভ্রমণের ব্যবস্থা করেন ওয়ালটন গ্রুপের পরিচালক রাইসা সিগমা হিমা।

চলতি মাসের ১৮ জুলাই নেপালের উদ্দেশ্যে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করেন তারা। গত ২২ জুলাই প্রায় এক সপ্তাহের ভ্রমণ শেষে তারা দেশে ফেরেন।

নেপাল ভ্রমণে গিয়ে তারা সেখানকার নানান দর্শনীয় স্থান ঘুরে দেখেন। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো হিমালয় পর্বত, কাঠমান্ডু দরবার স্কয়ার, পোখারার ডেভিস ফল, ফিউয়া লেক, বৌদ্ধনাথ মন্দির ইত্যাদি বিখ্যাত স্থান।

ওয়ালটনের ২৩ জন ব্যবসায়ী ও বিক্রয় প্রতিনিধি হলেন- জয়নাল আবেদিন, মাসুদ রানা, কিশোর সাহা, আব্দুল কাশেম, আরিফুল ইসলাম, শহিদুর রহমান, শামিম, নূরুল আলম, ই এম মারুফ মাহমুদ, শাখাওয়াত হোসাইন খান, আরিফুর রহমান হিরু, রফিকুল ইসলাম, জিয়াউর রহমান, রইস উদ্দীন, আজাহার উদ্দীন লিটন, আদিল উদ্দীন, রফিকুল ইসলাম সরকার, সাদেক হোসাইন, হারিজ শেখ, সানোয়ার হোসাইন, সালেহ আহমেদ এবং টিম লিডার ওয়ালটনের ডেপুটি অ্যাসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর শেখ তোফাজ্জল হোসেন (সোহেল)।

 

উল্লেখ্য, এর আগে এই ক্যাম্পেইনের আওতায় ব্যাপক প্রচার-প্রচারণার মাধ্যমে বিক্রয় বৃদ্ধিতে বিশেষ অবদান রাখায় তাদেরকে ক্রেস্ট ও সনদ দিয়ে পুরষ্কৃত করেছে কর্তৃপক্ষ।

গত ১২ জুন রাজধানীতে ওয়ালটন গ্রুপের করপোরেট অফিসে আয়োজিত ‘টেলিভিশন ব্র্যান্ডিং অ্যাওয়ার্ড, মে ২০১৯’ অনুষ্ঠানে পুরষ্কারপ্রাপ্তদের হাতে ক্রেস্ট ও সনদ তুলে দেন ওয়ালটন গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান এস এম নূরুল আলম রেজভী, পরিচালক তাহমিনা আফরোজ তান্না এবং রাইসা সিগমা হিমা।

জানা গেছে, গাজীপুরের চন্দ্রায় নিজস্ব কারখানায় ওয়ালটন টেলিভিশন তৈরি হচ্ছে আন্তর্জাতিক মান অনুসরণ করে। ওয়ালটন টিভি বিদ্যুৎসাশ্রয়ী ও পরিবেশবান্ধব। ‘মেড ইন বাংলাদেশ’ ট্যাগযুক্ত ওয়ালটন টিভি রপ্তানি হচ্ছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে। ইউরোপের বাজারে রপ্তানির জন্য ওয়ালটন টেলিভিশন সিই, আরওএইচএস, ইএমসি ইত্যাদি স্ট্যান্ডার্ড ও মান উত্তীর্ণ হয়েছে। যার ফলে সম্প্রতি ইউরোপের দেশ জার্মানিতে টিভি রপ্তানি শুরু করেছে ওয়ালটন।


রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৯ জুলাই ২০১৯/এম মাহফুজুর রহমান/সাইফ

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন