ঢাকা, রবিবার, ৭ আশ্বিন ১৪২৬, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

‘চরিত্রটি রাগী, একরোখা স্বভাবের’

আমিনুল ইসলাম শান্ত : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৫-১৯ ২:২৫:১২ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৫-১৯ ২:২৫:১২ পিএম
‘চরিত্রটি রাগী, একরোখা স্বভাবের’

বিনোদন ডেস্ক: জনপ্রিয় অভিনেতা মারজুক রাসেল, অভিনয়ে ঠিক ততটা সরব নন এখন। অনেকটা বেছে বেছে কাজ করছেন তিনি। ঈদুল ফিতর উপলক্ষে এবার একক একটি নাটকে অভিনয় করলেন। ‘মাই নেম ইজ জনি’ শিরোনামের নাটকটি রচনা ও পরিচালনা করেছেন তরুণ নির্মাতা হিমু আকরাম।

নাটকটির গল্প প্রসঙ্গে এ পরিচালক জানান, ৬৫০ টাকার জন্য জনিকে অপমান করে চলে যায় ম্যানেজার বাদল। এ ঘটনা ঘটে প্রেমিকা তুলতুলির সামনে। তারপর তুলতুলিও চলে যায়। অসহায় জনি মানিব্যাগ না নিয়ে বাসা থেকে বের হওয়ার জন্য নিজেই নিজের চুল ছিড়ে। ঝুট ব্যবসায়ি জনি রাগী স্বভাবের। মনে মনে বলে, মাই নেম ইজ জনি, প্রতিশোধ আমি নিবই!

সেই দিনই জনি চলে যায় গ্রামে। চাচাত ভাই বাদশা মিয়াকে দায়িত্ব দেয় ৬/৭ জন মোটা মানুষ সংগ্রহ করার। একেক জনের ওজন যেন তিন মনের বেশি হয়। মোটাদের ফ্রিতে ঢাকা শহর ঘোরানো হবে। আর জন প্রতি দেয়া হবে তিন হাজার টাকা! বাদশা মিয়া করিতকর্মা লোক। গ্রাম খুঁজে খুঁজে নিয়ে আসে গায়েন টুক্কা সওদাগর, কৃষক বদু মিয়া, গৃহিণী ময়নার মা, বাবুর্চি কালা চান, সেতারা ভাবি, কটকটি বিক্রেতা জামাল আর বোটকা দেলুকে।

অবশেষে সাতজন মোটা আর বাদশা মিয়াকে নিয়ে জনি রওনা দেয় ঢাকার উদ্দেশ্যে। ঝুট ব্যবসায়ী ঘাড় ত্যাড়া জনির মনের ভেতর তখনো প্রতিশোধের আগুন! প্রেমিকা তুলতুলিকে ফোন করে জানায়, সাতজন মোটা বাহিনী নিয়ে ঢাকার পথে সে। তুলতুলি জানতে চায়, সাতজন মোটা বাহিনী নিয়ে কী করবে? গোঁয়ার জনি উত্তরে বলে, প্রতিশোধ নিব, মাই নেম ইজ জনি! এমন নানা ঘটনার মধ্য দিয়ে এগিয়েছে নাটকটির কাহিনি।



নাটকটির নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন মারজুক রাসেল। নাটক প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘এতে জনি চরিত্রে অভিনয় করেছি। চরিত্রটি রাগী, একরোখা স্বভাবের। গ্রাম থেকে লাঠিয়াল ভাড়া করা, প্রতিশোধ নেয়া— সব মিলিয়ে চরিত্রটি বেশ মজার। মোট কথা এই নাটকের শেষের দিকে দর্শকরা অন্য একটি গল্প পাবেন। যেটা এভাবে ভাবেন নি কখনো।’

পূবাইলের বিভিন্ন স্থানে নাটকটির শুটিং হয়েছে। এর বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন কামাল হোসেন বাবর, আনন্দ খালিদ, শহিদুন্নবি, নীলা ইসলাম, আনোয়ার হোসেন, মাসুদ রানা মিঠু, বিল্লু, তাসফিয়া প্রমুখ। আগামী ঈদুল ফিতরে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল আইয়ে নাটকটি প্রচার হবে।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৯ মে ২০১৯/শান্ত

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন