ঢাকা, সোমবার, ১১ ভাদ্র ১৪২৬, ২৬ আগস্ট ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

‘প্রতিটি ম্যাচই আমার কাছে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি’

আবু হোসেন পরাগ : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০১-০১ ৮:৩০:২০ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০১-২৩ ১২:৫৯:২৫ পিএম
‘প্রতিটি ম্যাচই আমার কাছে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি’
এনামুল হক বিজয় (ফাইল ছবি)
Walton E-plaza

ক্রীড়া প্রতিবেদক : ২০১৯ বিশ্বকাপে খেলার স্বপ্ন দেখেন এনামুল হক বিজয়। এজন্য প্রতিটা ম্যাচই তার জন্য বিশ্বকাপের প্রস্তুতি বলে মনে করেন বর্তমানে জাতীয় দলের বাইরে থাকা এই ওপেনার।

২০১৫ বিশ্বকাপে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচে কাঁধে চোট পেয়েছিলেন এনামুল। এরপর প্রায় তিন বছর ওয়ানডে দলের বাইরে ছিলেন তিনি। গত বছরের জানুয়ারিতে দেশের মাটিতে ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজ দিয়ে আবার দলে ফেরেন ডানহাতি ব্যাটসম্যান। তবে চার ম্যাচে করেন মাত্র ৫৫ রান।

এরপর তিনি ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে গিয়েও ভালো করতে পারেননি। সেখানে তিন ম্যাচে করেন মাত্র ৩৩ রান। ফলে সংযুক্ত আরব আমিরাতে এশিয়া কাপ এবং দেশের মাটিতে জিম্বাবুয়ে ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে আর দলে সুযোগ পাননি।

এই সময়ে এনামুল খেলেছেন জাতীয় ক্রিকেট লিগ (এনসিএল) ও বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগ (বিসিএল)। এনসিএলে খুলনা বিভাগের হয়ে পাঁচ ম্যাচে এক সেঞ্চুরিতে করেন ২৭৮ রান। সদ্য শেষ হওয়া বিসিএলের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক তিনি। চ্যাম্পিয়ন প্রাইম ব্যাংক সাউথ জোনের হয়ে ছয় ম্যাচে দুই সেঞ্চুরিতে করেন ৬৫৮ রান।

তবে বিশ্বকাপ দলে জায়গা পাওয়াটা তার জন্য কঠিনই হবে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে খেলা বেশিরভাগ খেলোয়াড়ই সুযোগ পাবেন বিশ্বকাপে। টপ অর্ডারের লড়াইয়ে আছেন চার ওপেনার তামিম ইকবাল, ইমরুল কায়েস, সৌম্য সরকার, লিটন দাস। এনামুলের সুযোগ পাওয়া তাই বেশ কঠিন। তবে বিশ্বকাপে খেলার আশা ছাড়ছেন না ২৬ বছর বয়সি এই ব্যাটসম্যান।

বিপিএলের প্রস্তুতির ফাঁকে মিরপুরে আজ নিজের সেই স্বপ্নের কথাই জানালেন এনামুল, ‘সত্যি কথা বলতে আমি যখন উইন্ডিজ সিরিজ দিয়ে জাতীয় দলে ফিরলাম এবং যখন ম্যাচগুলোতে ভালো করতে পারলাম না, তখন থেকে প্রতিটি ম্যাচই আসলে আমার কাছে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি। সেটা এনসিএল বলেন, বিসিএল বলেন, বিপিএলের প্রতিটি ম্যাচ এবং বিপিএলের পরে যদি কোনো ওয়ানডে ম্যাচ খেলি অথবা যে কোনো ম্যাচই আমার জন্য ২০১৯ বিশ্বকাপের জন্য প্রস্তুতি। আমি সব সময় তৈরি থাকার চেষ্টা করব। এজন্য প্রতিটি ম্যাচই আমার নিজের জন্য অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ।’
 


‘আমি অবশ্যই ২০১৯ বিশ্বকাপ খেলতে চাই। এটি সব সময় আমি স্বপ্ন দেখি। ২০১৫ তে আমি যখন ইনজুরি আক্রান্ত হয়ে মাঠের বাইরে ছিলাম এবং চলে আসি, এরপর থেকেই আমি স্বপ্ন দেখি ২০১৯ বিশ্বকাপটি খেলব। আমার মনে প্রাণে আছে, আমার প্রতিটি চেষ্টাতে, প্রতিটি নেট এবং জিম সেশনে আমি চিন্তা করি যে বিশ্বকাপ খেলব। এর জন্য যতটা প্রস্তুত হওয়া দরকার এবং যতটুকু পারফর্ম করা দরকার আমি চেষ্টা করব।’

ঘরোয়া ক্রিকেটে ভালো পারফর্ম করে জাতীয় দলে ফিরেছিলেন। কিন্তু জাতীয় দলে সেটা ধরে রাখতে পারেননি। কেন এই পার্থক্য? এনামুল বললেন, ‘আমি ঘরোয়া ক্রিকেটে পারফর্ম করেছিলাম বিধায় কিন্তু আমি ২০১২ থেকে ২০১৫ বিশ্বকাপ পর্যন্ত জাতীয় দলে ভালোভাবে খেলতে পেরেছি। ঘরোয়া ক্রিকেটের পারফরম্যান্স অবশ্যই আন্তর্জাতিকের জন্য কাজে লাগে। রান করার অভ্যাসটি সব সময়ই কাজে লাগে। আমি এবার এসে করতে পারিনি, কিন্তু গত তিন চার বছর ধরে আমি কিন্তু আন্তর্জাতিকে ভালো পারফর্ম করেছি। আমার কাছে মনে হয় এবার হয়নি, তবে পরবর্তীতে ঘরোয়া ক্রিকেটে পারফর্ম করেই আমি জাতীয় দলে খেলব।’

তিন বছর পর দলে ফিরে এনামুল যে সাত ইনিংস খেলেছেন, সেখানে সর্বোচ্চ রান ৩৫। এবার না পারলেও ভবিষ্যতে জাতীয় দলে সুযোগ পেলে বড় ইনিংস খেলার ব্যাপারে আশাবাদী তিনি, ‘মাত্র চার-পাঁচটি ইনিংসে আসলে অনেক কিছু বোঝা যায় না। আর লাক ফেভার করার ব্যাপার থাকে, অনেক দিন পর জাতীয় দলে খেললাম বা সেট হয়ে আউট হয়ে গিয়েছি- ঐ ইনিংসগুলো বড় করতে পারলে হয়তো কাজে দিত। আমার কাছে মনে হয় যে আমাদের ঘরোয়া ক্রিকেটে পারফর্ম করা অনেক জরুরি। সেটা জাতীয় দলে সাহায্য করে। এবার ভালো করতে পারিনি, তবে আশা করব, পরবর্তীতে সুযোগ পেলে ভালো করার।’

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/১ জানুয়ারি ২০১৯/পরাগ

Walton AC
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       

Walton AC
Marcel Fridge