ঢাকা, শনিবার, ৮ ভাদ্র ১৪২৬, ২৪ আগস্ট ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

বাণিজ্য মেলায় সাত রঙের চা

আমিনুর রহমান হৃদয় : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০১-২০ ৩:১৭:০০ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০১-২০ ৫:৪০:১৪ পিএম
বাণিজ্য মেলায় সাত রঙের চা
Walton E-plaza

আমিনুর রহমান হৃদয় : সাধারণত দুই ধরনের চা আমরা পান করতে অভ্যস্ত। দুধ চা আর লাল চা। কিন্তু এক কাপ চায়ের রং যদি হয় রংধনুর সাত রঙের মতো! তবে নিশ্চয়ই সেই সাত রঙের চায়ের স্বাদ দুধ চা কিংবা লাল চায়ের থেকে আলাদা হবে। এই সাত রঙের চায়ের স্বাদ নিতে হলে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার ১নং শিশু পার্কের গেটের পাশে অবস্থিত রংধনু সাত কালার চা ঘরে যেতে হবে।

সাত রঙের চা ছাড়াও ওই চা ঘরে পাওয়া যাচ্ছে পাঁচ রঙের চা, দুই রঙের চা, হারবাল চা, গ্রীণ চা ও স্পেশাল দুধ চা। সাত রঙের এক কাপ চায়ের স্বাদ নিতে হলে আপনাকে ৮০ টাকা দিতে হবে। আর পাঁচ রঙের এক কাপ চা পান করতে ৬০ টাকা, দুই রঙের চা ৪০ টাকা। এছাড়া ২০ টাকায় হারবাল চা, গ্রীণ চা ও স্পেশাল দুধ চা পাবেন।

সরেজমিনে দেখা যায়, বাণিজ্য মেলায় রংধনু চা ঘরের সামনে দাঁড়িয়ে কেউ পান করছেন সাত রঙের চা, কেউ পান করছেন পাঁচ রঙের চা, আবার অনেকে দুধ চা পান করছেন। এসময় চা পান করতে করতে সাব্বির হোসেন নামে একজন বলেন, ‘মেলায় ঘুরতে এসে সাত রঙের চা পান করা হয়ে গেল। সাত রঙের চায়ের স্বাদ ভালোই লাগলো আমার কাছে।’ রবিউল ইসলাম নামে এক শিক্ষার্থী বলেন, ‘সাত রঙের চায়ের সাতটি ধাপে সাত রকমের স্বাদ পেলাম। তবে সব সময় এই চা খেতে ভালো লাগবে নাহ।’

‘চায়ের স্বাদ তো অসাধারণ। তবে দামটাও কিন্তু একটু বেশি। দাম যেমন নিয়েছে, তেমন স্বাদও আছে।’ বলছিলেন ফারজানা আক্তার নামে এক বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী। সাত রঙের এই চা পান করার পর সবুজ, রুবেল, কাউসার সহ আরো কয়েকজন জানালেন, এই চায়ের স্বাদ অন্যরকম। তবে প্রত্যেক দিন এই চা পানে ভালো লাগবে না। সবুজ বললেন, ‘এই সাত রঙের চা হচ্ছে মেলায় ঘুরতে এসে পান করে যাওয়া। একবার স্বাদ নেওয়া যেতেই পারে এই চায়ের।’

এই চা তৈরির কারিগর মোহাম্মদ শাকিব জানালেন, ‘সাত রঙের চা, পাঁচ রঙের চা কিংবা দুই রঙের চা সবার সামনে তৈরি করা হয় না। এই চা অর্ডার করার পর দোকানের ঘরে ঢুকে সাত রঙের চা তৈরি করে তা পরিবেশন করা হয়।’



শাকিব বলেন, ‘কিছুটা কৌশল করেই এই চা বানানো হয়ে থাকে। পাতলা-ভারির স্তর করে এই সাত রঙের চা বানিয়ে থাকি।২ মিনিট এক কাপ চা বানাতে সময় লাগে।’

৫ বছর ধরে এই চা বানানোর কাজ করে আসছেন জানিয়ে তিনি বলেন, আগে বেতন পেতাম প্রতিমাসে ৬ হাজার টাকা। আর এখন প্রতি মাসে বেতন পাই ১০ হাজার টাকা।’

ওই কারিগর বলেন, ‘সাত রঙের এক কাপ চায়ের নিচের স্তরে থাকে ওরেঞ্জ স্বাদযুক্ত চা, এর উপরে থাকে ব্লাক কফি, সাদা চা, স্ট্রেুবেরী চা, দুধ চা, গ্রিন চা, ফ্রেশ দুধ এভাবেই সাত রঙে সাত স্তর বানিয়ে এই চা বানানো হয়।’

রংধনু চা ঘরের মালিক সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘১০ বছর ধরে এই চায়ের ব্যবসা করছি। রাজধানীর খিলগাঁওয়ে এই চায়ের দোকান আছে।’

তিনি জানান, এবারের মেলায় চা বিক্রি করে প্রতিদিন ১০ হাজার টাকা আয় হচ্ছে। ছুটির দিনগুলোতে বিক্রি বেড়ে ১৫ হাজার টাকা হয়।

পড়ুন :
* টং ঘরে ‘অনন্ত জলিল’ চা!
* জসিমের বত্রিশ আইটেমের চা
* ইতিহাসের জানান দিচ্ছে ‘বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ’

 



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২০ জানুয়ারি ২০১৯/ফিরোজ

Walton AC
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       

Walton AC
Marcel Fridge