ঢাকা, সোমবার, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ অক্টোবর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

ছাত্রীকে অপহরণের চেষ্টা, বাধা দেওয়ায় ৫ জনকে পিটুনি

ফরহাদ হোসেন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৮-১০-০১ ১১:৩২:১৪ এএম     ||     আপডেট: ২০১৮-১০-০১ ১১:৩২:১৪ এএম

লক্ষ্মীপুর সংবাদদাতা : লক্ষ্মীপুরে মাদ্রাসা ছাত্রী অপহরণ চেষ্টাকালে বাধা দেওয়ায় একই পরিবারের চারজনসহ পাঁচজনকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে বিনা নামে এক বখাটের বিরুদ্ধে।

রোববার রাতে সদর উপজেলার হাজিরপাড়া ইউনিয়নের বড় বল্লবপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরে স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।

আহতরা হলেন- ওই ছাত্রীর বাবা লুৎফুর রহমান, মা বকুল বেগম, দুই ভাই আবদুল বাতেন ও বাবলু এবং প্রতিবেশী ফোরকান।

অভিযুক্ত বখাটে বিনা উপজেলার চর শাহী ইউনিয়নের বসুদুহীতা গ্রামের মো. টিপুর ছেলে।

হাসপাতালে আহতদের স্বজনরা জানান, ভুক্তভোগী ছাত্রী লক্ষ্মীপুর আয়েশা (রা.) মহিলা কামিল মাদ্রাসার আলিম প্রথম বর্ষের ছাত্রী। প্রতিদিন মাদ্রাসায় আসা-যাওয়ার পথে বিনা ওই ছাত্রীকে উত্যক্ত করে আসছে। বিষয়টি ছাত্রীর বাবা মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ ও বখাটে বিনার পরিবারকে জানান। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে রোববার সন্ধ্যায় বিনা ১৫/২০ জনের একটি সংঘবদ্ধ দল নিয়ে বাড়ি থেকে ওই ছাত্রীকে অপহরণের চেষ্ট চালায়। এ সময় বাধা দিতে গেলে বিনার নেতৃত্বে বাহারসহ লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে অতর্কিত হামলা চালায়। এতে একই পরিবারের চারজনসহ পাঁচজন আহত হন। এক পর্যায়ে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে বিনা ও তার লোকজন পালিয়ে যায়। এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচারের দাবি করেন ভুক্তভোগী পরিবারের স্বজনরা।

আয়েশা (রা.) মহিলা কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ রুহুল আমিন কামাল বলেন, ‘লুৎফুর রহমানের অভিযোগ পাইনি। পেলে উত্যক্তকারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব।’

এ ব্যাপারে চন্দ্রগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘হামলার ঘটনাটি শুনেছি। তবে থানায় কেউ অভিযোগ করেনি। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’




রাইজিংবিডি/লক্ষ্মীপুর/১ অক্টোবর ২০১৮/ফরহাদ হোসেন/সাইফুল

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন