ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৭ কার্তিক ১৪২৬, ২৪ অক্টোবর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

‘উন্নয়ন কার্যক্রমে সংগঠনের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা গুরুত্বপূর্ণ’

আরিফ সাওন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৮-১০-০৩ ৬:১৮:২১ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-১০-০৩ ৬:১৮:২১ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলাদেশ ইতিমধ্যে উন্নয়নের বিভিন্ন সূচকে অগ্রগতি অর্জন করেছে। কিন্তু উন্নয়নের ধারাবাহিকতা নিশ্চিত করার জন্য বিভিন্ন প্রতিবন্ধকতাকেও পাড়ি দিতে হবে। উন্নয়নের বিভিন্ন কার্যক্রম বাস্তবায়নে সকল সংগঠনের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এসডিজির লক্ষ্যগুলোতে পৌঁছানোর কার্যক্রম বাস্তবায়নে তাদের সহযোগিতা প্রয়োজন বলে মত দিয়েছেন আলোচকরা।

বুধবার ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউ‌ঞ্জে সামা‌জিক সংগঠন এ‌মি‌নেন্স এর  উদ্যো‌গে ‘এসডিজি এবং অব্যাহত উন্নয়ন: জনগণের অংশগ্রহণের জন্য এনজিও, দাতা এবং জাতিসংঘ সংস্থাগুলোর ভূমিকা’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

বক্তারা বলেন, এনজিও, দাতা এবং জাতিসংঘের সংস্থাগুলোর সকল সংগঠনের অংশগ্রহণ অর্থনৈতিক অগ্রগতি নিশ্চিত করবে। সমাজের সকল স্তরের সম্পদগুলো যথাযথ বন্টনের ক্ষেত্রে অসমতা দূর করতে এবং পরিবেশ ও সামাজিক সূরক্ষার জন্য সরকারকে সকলের সহযোগিতা করতে হবে। দেশের ৭ম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনায় বলা হয়েছে যে, অবকাঠামো উন্নয়নের কার্যক্রম বাস্তবায়নের জন্য পেশাদার সংগঠনের স্বার্থে প্রন্তিক জনগোষ্ঠীকে নিয়েও কাজ করা আবশ্যক। পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য বিভিন্ন সংগঠনের অংশগ্রহণের পাশাপাশি তাদের কাজের অগ্রগতি পর্যবেক্ষণও জরুরি।’

বক্তার আরো বলেন, ‘বাংলাদেশ আশা করছে যে, ২০২১ সালের মধ্যে একটি মধ্যম আয়ের দেশ এবং ২০৪১ সালের মধ্যে একটি উন্নত দেশে রূপান্তরিত হবে। সরকার এনজিও, দাতা, বেসরকারি সংস্থা, প্রচার মাধ্যম ও সামাজিক সংগঠনগুলোর ব্যাপক অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সকলের অংশগ্রহণ দৃষ্টিভঙ্গি গ্রহণ করেছে।’

পিকেএসএফের চেয়ারম্যান কাজী খলীকুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন এনজিও বিষয়ক ব্যুরোর মহাপরিচালক কে এম আব্দুস সালাম, তথ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব আব্দুল মালেক, পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব শামসুল আলম।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/৩ অক্টোবর ২০১৮/সাওন/শাহনেওয়াজ

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন