ঢাকা, সোমবার, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৮ নভেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

রায়ে স্বস্তি অ্যাটর্নির, তবে ...

মেহেদী হাসান ডালিম : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৮-১০-১০ ৩:৫৭:২৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-১০-১০ ৫:২২:২১ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক : আলোচিত ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায়ে স্বস্তি  প্রকাশ করেছেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহুবুবে আলম।

বুধবার সুপ্রিম কোর্টে নিজ কার্যালয়ে রায়ের প্রতিক্রিয়ায় অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, রায়ে আমরা স্বস্তি অনুভব করছি। তবে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান এ হত্যাকাণ্ডের মাস্টারমাইন্ড হয়ে থাকলে তার সর্বোচ্চ শাস্তি হওয়া উচিৎ ছিল।

অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, ‘বাংলাদেশের বিচারের ইতিহাসে আজকে একটি মাইলফলক সূচিত হলো। যে মামলাটিকে নষ্ট করে দেওয়ার জন্য নানারকম ষড়যন্ত্র করা হয়েছিল। জজ মিয়া নামক এক নিরপরাধ লোককে সাজানো হয়েছিল আসামি। সে পর্যায় থেকে মামলাটি আলোর মুখ দেখেছে এবং অপরাধীরা সাজা পেয়েছে। এটা বাংলাদেশের ইতিহাসে, বিচার বিভাগের ইতিহাসে একটি বড় সার্থকতা।’

রাজনৈতিক প্রতিহিংসা থেকেই এই হামলা ও হত্যাকাণ্ড ঘটানো হয়েছিল, মন্তব্য করে অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, ‘এই মামলাটিতে প্রমাণ হলো- রাজনৈতিক প্রতিহিংসা কতখানি ভয়ঙ্কর হতে পারে! রাজনৈতিকভাবে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে এই পৃথিবী থেকে বিদায় করে দেওয়ার ষড়যন্ত্র হয়েছিল। তিনি অলৌকিকভাবে বেঁচে গেছেন।’

তিনি বলেন, ‘বিচার যেটা হয়েছে, তাতে প্রাথমিকভাবে আমি স্বস্তি ফিল করছি। তবে রায় দেখার পরে যদি মনে করি যে, কোনো আসামির ফাঁসি হওয়া উচিৎ ছিল কিন্তু তাকে ফাঁসি দেওয়া হয়নি, সেক্ষেত্রে আমরা আপিল করব।’

প্রসঙ্গত, ঢাকার বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় প্রাক্তন স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর ও প্রাক্তন উপমন্ত্রী আবদুস সালাম পিন্টুসহ ১৯ জনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

মামলায় প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার বড় ছেলে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান, খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরীসহ ১৯ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

মামলার অপর ১১ আসামিকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১০ অক্টোবর ২০১৮/মেহেদী/রফিক

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন