ঢাকা, মঙ্গলবার, ৮ শ্রাবণ ১৪২৬, ২৩ জুলাই ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

লেখক ইমতিয়াজ মাহমুদ কারাগারে

মামুন খান : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৫-১৫ ৪:১০:৫৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৫-১৫ ৯:১৩:১৪ পিএম
লেখক ইমতিয়াজ মাহমুদ কারাগারে
Voice Control HD Smart LED

নিজস্ব প্রতিবেদক : তথ্যপ্রযুক্তি আইনে করা একটি মামলায় সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ও লেখক ইমতিয়াজ মাহমুদকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

বুধবার ঢাকা মহানগর হাকিম সত্যব্রত শিকদার শুনানি শেষে জামিন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এদিন সকালে রাজধানীর বনানীর নিজ বাসা থেকে বনানী থানা পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। এরপর তাকে আদালতে হাজির করে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করে পুলিশ।

অপরদিকে ইমতিয়াজ মাহমুদের পক্ষে ঢাকা বারের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান খান (রচি), সাখাওয়াত হোসেন (তাসলিম) প্রমুখ আইনজীবী জামিন আবেদ করেন।

শুনানিতে তারা বলেন, তিনি সুপ্রিম কোর্টের একজন আইনজীবী।  তার বিরুদ্ধে আইসিটি মামলা ছিল। ২০১৭ সালের ২৫ জুলাই চার্জশিট দাখিল পর্যন্ত তিনি হাইকোর্ট থেকে জামিন নেন। হয়তো বা কোন একটা কাগজ আদালতে না পৌঁছানোর কারণে এরকমটি হয়েছে। এমতাবস্থায় আমরা তার জামিন চাচ্ছি।

তখন বিচারক বলেন, ২০১৯ সালের ২১ জানুয়ারি তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হয়েছে। আর চার্জশিটও বোধহয় চলে এসেছে। তখন আইনজীবীরা বলেন, কোথাও একট ভুল হচ্ছে।

তখন বিচারক বলেন, ভুল আপনাদের হতে পারে আবার আমাদেরও হতে পারে। আর আমার কাছে তো মূল নথি নাই। এরপর আদালত জামিন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

ইমতিয়াজ মাহমুদের বিরুদ্ধে খাগড়াছড়ি সদর থানায় সফিকুল ইসলাম নামের এক ব্যক্তি ২০১৭ সালের ২১ জুলাই তথ্য প্রযুক্তি আইনে একটি মামলা করা হয়।

মামলায় অভিযোগ করা হয়, ২০১৭ সালের ১ জুলাই রাত সোয়া ১২ টার দিকে ইমতিয়াজ মাহমুদ ফেসবুকে সাম্প্রদায়িক উত্তেজনা সৃষ্টিমূলক একটা পোস্ট দেন। তার এ পোস্ট খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার যেকোনো স্থানে পাহাড়ি বাঙালিদের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ সৃষ্টির লক্ষ্যে প্রত্যক্ষ উস্কানি ছিল বলে বাদী এজাহারে উল্লেখ করেন। ২ জুলাই তিনি আরেকটি মিথ্যা পোস্ট দেন দেন। যা মিথ্যা বওে বাদী উল্লেখ করেন। ৬ জুলাই এবং ১০ জুলাই তিনি আরো পোস্ট দেন। ১ জলাই হতে ১০ জুলাই পর্যন্ত আসামির পোস্টগুলো উস্কানিমূলক, যা পার্বত্য চট্টগ্রামের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের জন্য।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৫ মে ২০১৯/ মামুন খান/সাইফ

Walton AC
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       

Walton AC
Marcel Fridge