ঢাকা, বুধবার, ৭ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ অক্টোবর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

শামীমের উত্থান যেভাবে

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৯-২০ ৪:৩১:৪২ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৯-২০ ৪:৪৮:৪১ পিএম

এস এম গোলাম কিবরিয়া শামীম ওরফে জি কে শামীম। এক সময় যুবদলের রাজনীতির সঙ্গে থাকলেও ক্ষমতার পালা বদলে তিনি এখন যুবলীগের কেন্দ্রীয় নেতা। তিনি টাকা দিয়ে সব কিছু ম্যানেজ করেন বলে গোয়েন্দাদের কাছে তথ্য আছে।

গোয়েন্দাদের কাছে তথ্য আছে, শাহজাহানপুরে বিএনপির এক নেতার ক্যাডার ছিলেন শামীম। ওই সময় মতিঝিল, পল্টন, শান্তিনগরসহ আশপাশের এলাকায় তিনি ছিলেন এক আতঙ্কের নাম। চাঁদাবাজি ছিল তার পেশা। গণপূর্ত ভবনের ট‌্যান্ডার নিয়ন্ত্রণও শুরু করেন। ২০০৮ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আশার পর তিনিও পাল্টে যান। যুবলীগের কেন্দ্রীয় নেতা হয়ে বেপরোয়া হয়ে ওঠেন আরও। বড় বড় ঠিকাদারি কাজ তার নির্বাচিত ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ছাড়া কেউ করতে পারতেন না। তার ক্ষমতার দাপট সবুজবাগ, বাসাবো, মতিঝিলসহ বিভিন্ন এলাকার মানুষ অতিষ্ঠ। নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতিও হন তিনি। নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার সন্মানদী ইউনিয়নের দক্ষিণপাড়া গ্রামের মৃত মো. আফসার উদ্দিন মাস্টারের ছেলে শামীম।

জানা গেছে, এভাবে ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে অবৈধ অর্থ হাতিয়ে বাসাবো এলাকায় পাঁচটি বাড়ি এবং একাধিক প্লট করেছেন শমীম। কদমতলায় পাঁচতলা একটি বাড়ি আছে তার। বনানীর ওল্ড ডিওএইচএসে নিজের ফ্ল্যাটও কিনেছেন। এছাড়া ডেমরা ও দক্ষিণগাঁও ছাড়াও সোনারগাঁ উপজেলা, বান্দরবান ও গাজীপুরে কয়েকশ’ বিঘা জমি কিনেছেন যুবলীগের এই নেতা। এক সময় গোপনে ঢাকার অবৈধ ক্যাসিনো ব্যবসা শুরু করেন। যুবলীগের অন্য নেতাদের সঙ্গে তিনিও এ ব্যবসার অন্যতম কর্নধার। এ অভিযোগে নিকেতনের বাড়ি থেকে শুক্রবার শামীমকে আটক করেছে র‌্যাব।


ঢাকা/মাকসুদ/সাজেদ

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন