Breaking News
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ২ ট্রেনের সংঘর্ষে নিহত ১৫
X
ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৭ কার্তিক ১৪২৬, ১২ নভেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

গর্ভবতী নারীরা যেসব ফল খাবেন না

এস এম গল্প ইকবাল : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৮-১৬ ৯:৪৮:১৮ এএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৮-১৬ ১০:১৬:৫০ এএম
প্রতীকী ছবি

এস এম গল্প ইকবাল : প্রেগন্যান্সি বা গর্ভাবস্থা হলো নারীদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ সময়। প্রেগন্যান্সির সময় ফল ও শাকসবজি খাওয়ার গুরুত্ব খুব বেশি। কিন্তু এসময় কিছু ফল ও শাকসবজি এড়িয়ে চলাই ভালো। এ প্রতিবেদনে গর্ভবতী নারীদের যেসব ফল খাওয়া উচিত নয় তা উল্লেখ করা হলো।

আনারস

আনারসের স্বাস্থ্য উপকারিতা অনেক, বিশেষ করে মাসিক চক্র বন্ধ বা মেনোপজের সময় এই ফলটি নারীদের জন্য খুব বেশি প্রয়োজন। কিন্তু গর্ভবতী নারীদের এই ফল থেকে দূরে থাকা উচিত, কারণ এটি খেলে গর্ভস্থ বাচ্চার মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে। গর্ভাবস্থায় যেসব কারণে আনারস খাবেন না:

* আনারস গর্ভপাতের ঝুঁকি বাড়ায়।

* আনারস খেলে জরায়ু সংকুচিত হওয়ার ঝুঁকি বেড়ে যায়, যা গর্ভে বিকাশমান বাচ্চার জন্য বিপজ্জনক হতে পারে।

* আনারসের ব্রোমেলিয়ান জরায়ুমুখকে নরম করে।

আঙুর

প্রেগন্যান্সির সময় আঙুর খাবেন কি খাবেন না তা একটি বিতর্কিত বিষয়। অনেক বিশেষজ্ঞ বলেন যে, গর্ভাবস্থায় আঙুর সম্পূর্ণরূপে নিরাপদ এবং অন্য বিশেষজ্ঞরা বলেন যে, এসময় এই ফলটি এড়িয়ে চলাই ভালো। যদি আঙুর আপনার খুব প্রিয় হয়, তাহলে নিজ বিবেচনায় অল্প পরিমাণে খেতে পারেন। কিন্তু খালিপেটে আঙুর খাবেন না অথবা অ্যাসিড রিফ্লাক্স থাকলে মোটেই খাবেন না। যেসব কারণে গর্ভাবস্থায় আঙুর না খাওয়ার কথা বিবেচনা করতে পারেন:

* আঙুরে প্রচুর পরিমাণে রেসভিরাট্রোল থাকে। এই কেমিক্যালটি মা হতে যাওয়া নারীদের জন্য বিষাক্ত হতে পারে।

* গর্ভবতী নারীদের পরিপাকতন্ত্র দুর্বল। তাদের দুর্বল পরিপাকতন্ত্র কালো আঙুরের খোসা হজম করতে পারে না।

* বেশি পরিমাণে আঙুর খেলে অ্যাসিডিটি, বমিভাব ও বমি হতে পারে। অত্যধিক আঙুর খেলে পাতলা পায়খানা অথবা ডায়রিয়া হতে পারে।

পেঁপে

কাঁচা অথবা অর্ধপাকা পেঁপেতে ল্যাটেক্স থাকে, যা গর্ভাবস্থায় এড়িয়ে চলা উচিত। গর্ভবতী নারীদেরকে তৃতীয় বা শেষ ট্রাইমেস্টারে কাঁচা পেঁপে না খাওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়। যেসব কারণে প্রেগন্যান্সির সময় কাঁচা বা অর্ধপাকা পেঁপে খাবেন না:

* কাঁচা ও অর্ধপাকা পেঁপের ল্যাটেক্স জরায়ু সংকোচন ও অকালে প্রসব বেদনার কারণ হতে পারে।

* কাঁচা পেঁপে শরীরের তাপমাত্রা বাড়াতে পারে।

* কাঁচা পেঁপের পাপাইন ভ্রুণকে সহায়তাকারী ঝিল্লিকে দুর্বল করতে পারে।

* কাঁচা পেঁপের পাপাইন হলো একটি কমন অ্যালার্জেন যা বিপজ্জনক অ্যালার্জিক রিয়্যাকশন সৃষ্টি করতে পারে।

তেঁতুল

ভিটামিন সি’র অন্যতম সমৃদ্ধ উৎস হলো তেঁতুল, কিন্তু অত্যধিক ভিটামিন সি গর্ভবতী নারীদের ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে। যেসব কারণে গর্ভবতী নারীরা তেঁতুল এড়িয়ে চলার চেষ্টা করবেন:

* অত্যধিক ভিটামিন সি গর্ভপাতের কারণ হতে পারে। গর্ভাবস্থার প্রথম মাসে অতিমাত্রায় ভিটামিন সি খেলে প্রজেস্টরনের উৎপাদন কমে যেতে পারে, যা গর্ভপাত ঘটাতে পারে।

* ভিটামিন সি’র উচ্চ ডোজ প্রি-টার্ম বার্থ বা সঠিক সময়ের পূর্বেই বাচ্চা প্রসবের ঝুঁকি বৃদ্ধি করতে পারে।

* প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি খেলে ভ্রুণের কোষ ড্যামেজ হতে পারে।

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৬ আগস্ট ২০১৯/ফিরোজ

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন