ঢাকা, শনিবার, ৫ আশ্বিন ১৪২৬, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

বুধবার ‘গহর বাদশা ও বানেছা পরী’

আমিনুল ইসলাম শান্ত : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৬-২৬ ৪:৫০:৩৬ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৬-২৬ ৫:০৬:১৪ পিএম
বুধবার ‘গহর বাদশা ও বানেছা পরী’
‘গহর বাদশা ও বানেছা পরী’ নাটকের দৃশ্য

বিনোদন ডেস্ক : ঢাকার প্রথম সারির নাটকের দল নাগরিক নাট্যঙ্গন। দলটির ২০তম প্রযোজনা ‘গহর বাদশা ও বানেছা পরী’। ২০১৫ সালের ১৭ নভেম্বর নাটকটির প্রথম প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়। আগামীকাল বুধবার সন্ধ্যা ৭টায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালায় নাটকটির ৩০তম মঞ্চায়ন অনুষ্ঠিত হবে। নাটকটি নির্দেশনা দিয়েছেন হৃদি হক।

গল্প প্রসঙ্গে নির্দেশক হৃদি হক জানান, গিলামাইট বনে বিশ্বিং বাদশার শিকার করতে যাওয়া দিয়ে নাটকটির গল্পের শুরু। শিকারের একপর্যায়ে হরিণশাবকের দিকে তীর ছোড়েন বাদশা। মানবসন্তানের কান্নায় তিনি বুঝতে পারেন, চরম ভুল হয়ে গেছে। অভিশাপ নিয়ে রাজ্যে ফেরেন তিনি। এর মধ্যে পুত্র সন্তান ঘরে আসে তার। রাজ্যজুড়ে যখন আনন্দের বন্যা, বাদশার মনে তখন সন্তান হারানোর ভয়। পুত্রকে প্রাসাদের বাইরে যেতে দেন না রাজা। কিন্তু শত আয়োজনেও বাদশাহ কি আটকে রাখতে পারে তার নিয়তি!

 



তিনি আরো জানান, বার বছর বয়সে বিশ্বিং বাদশা যখন বড় ছেলে গহরকে রাজ্যের অধিপতি করে, তখন উজিরের চক্রান্তে গহর আবদার করে গিলামাইট বনে শিকার করতে যাবে। মায়ের আকুতি, স্ত্রী কলাবতীর মিনতি সব এড়িয়ে দ্বিতীয় স্ত্রী সরাবনকে বাবা ও মায়ের দায়িত্ব দিয়ে গহর যায় শিকারে। গিলামাইট বনে গিয়ে গহর বন্দি হয় বিশ্বিং দানবের হাতে। বহু যুদ্ধ ও সংগ্রামের পর সে বনের বানেছা পরীকে নিয়ে নিজের রাজ্যে ফিরে দেখে রাজ্য উজিরের দখলে। তারপর বুদ্ধি ও মেধা দিয়ে জয় করে তার রাজ্য। এভাবেই এগিয়েছে নাটকটির গল্প।

নাটকটির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন হৃদি হক,  জুয়েল জহুর, হাবিব বাহার, আসিব চৌধুরী, সুতপা বড়ুয়া, বিশ্বজিৎ ধর, শামিম আহমেদসহ অনেকে।

 



নাটকটির মঞ্চ পরিকল্পনা করেছেন সাজু খাদেম। আবহসংগীত, সুর ও সংগীত পরিকল্পনায় কামরুজ্জমান রনি। আলোক পরিকল্পনায় ঠান্ডু রায়হান। আবহসংগীত প্রক্ষেপন বর্ণ বাদল। আলোক প্রক্ষেপন জয়নাল আবেদিন পবন। পোশাক পরিকল্পনায় মাহমুদুল হাসান মুকুল।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৬ জুন ২০১৮/শান্ত/মারুফ

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন