ঢাকা, মঙ্গলবার, ৮ শ্রাবণ ১৪২৬, ২৩ জুলাই ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

২ কলেজ ছাত্রী হত্যায় পুলিশ সদস্যসহ দুজনের মৃত্যুদণ্ড

রুমন চক্রবর্তী : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০২-১৭ ৪:৪৫:২০ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০২-১৭ ৪:৫০:০২ পিএম
২ কলেজ ছাত্রী হত্যায় পুলিশ সদস্যসহ দুজনের মৃত্যুদণ্ড
Voice Control HD Smart LED

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি : কিশোরগঞ্জে দুই কলেজ ছাত্রীকে অপহরণ, ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় পুলিশ সদস্যসহ দুজনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত।

রোববার কিশোরগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক কিরণ শংকর হালদার এ রায় দেন।

মামলার অপর ছয় আসামিকে চার বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। রায় ঘোষণার সময় মামলার আট আসামির মধ্যে তিনজন আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলো- পুলিশ সদস্য নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলার হাটবারেঙ্গা গ্রামের আব্দুস সোবহানের ছেলে মনিরুজ্জামান হলুদ এবং ঝালকাটি জেলার নলছিটি উপজেলার কাউখিড়া আমিরাবাদ গ্রামের ফজলে আলী হাওলাদারের ছেলে শামীম হাওলাদার জহির। তারা দুজনই পলাতক রয়েছে।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, ২০০৮ সালের ১৬ জুলাই কিশোরগঞ্জে কর্মরত থাকাকালে পুলিশ সদস্য মনিরুজ্জামন হলুদ ও তার বন্ধু শামীম শহরের সাবেক শিক্ষক আবু বাক্কারের মেয়ে আফরোজা আক্তার সুমি এবং আইনজীবী নূর উন নবীর মেয়ে আফরোজা আক্তার ঊর্মিকে অপহরণ করে ঢাকায় নিয়ে যায়।

রাজধানীর কারওয়ান বাজারের হোটেল ওয়েস্টার্ন গার্ডেনে নিয়ে তাদের শ্বাসরোধ করে হত্যা করে পালিয়ে যায় দুজন। হোটেল কর্তৃপক্ষ পুলিশে খবর না দিয়ে নিহতদের লাশ তেজগাও ও এফডিসি এলাকায় ফেলে দেয়। পরে পুলিশ অজ্ঞাতনামা হিসেবে দুই কলেজছাত্রীর লাশ উদ্ধার করে।

ঘটনার দুই মাস চার দিন পর নিহত সুমির বাবা আবু বাক্কার বাদী হয়ে অজ্ঞাত আসামিদের নামে কিশোরগঞ্জ থানায় অপহরণ মামলা করেন। এরপর পুলিশ তদন্ত করে আসামিদের চিহ্নিত করে গ্রেপ্তার করে। প্রধান দুই আসামিসহ তিন জন আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেয়।

জেলা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক আমজাদ হোসেন মোট আটজনের বিরুদ্ধে ২০০৯ সালের ১৪ ডিসেম্বর আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।



রাইজিংবিডি/কিশোরগঞ্জ/১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯/রুমন চক্রবর্তী/শাহেদ

Walton AC
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       

Walton AC
Marcel Fridge