ঢাকা, বুধবার, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ২৭ মে ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

‘ঝুড়ির ভোট ঘুড়িতে যাওয়াতেই হেরেছিলাম’

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০২-১০ ৫:০৪:০৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০২-১০ ৫:২৩:৫৬ পিএম

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৩১ নম্বর ওয়ার্ডের ফলাফল পুনঃগণনায় ২৭ ভোটে জিতেছেন ঝুড়ি প্রতীকের প্রার্থী শেখ মোহাম্মদ আলমগীর।

ঝুড়ি প্রতীকে ২৪৭২ ভোট পেয়েছেন প্রার্থী শেখ মোহাম্মদ আলমগীর। আর তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী টিফিন ক্যারিয়ার প্রতীকে জুবায়েদ আদেল পেয়েছে ২৪৪৫ ভোট।

সোমবার দুপুরে নির্বাচন ভবনের মিডিয়া সেন্টারে স্থগিত এই ওয়ার্ডের ফলাফল আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আবদুল বাতেন।

ফলাফল ঘোষণার পর তা প্রত্যাখান করে আদালতে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন টিফিন ক্যারিয়ার প্রতীকের জুবায়েদ আদেল। এর আগে গত পয়লা ফেব্রুয়ারি দুই সিটিতে ভোট অনুষ্ঠিত হয়। পরে ২ ফেব্রুয়ারি মধ্যরাতে ফলাফল ঘোষণা করা হয়, তাতে জুবায়েদ আদেলকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়।

অন্যদিকে জয়ী প্রার্থী শেখ মোহাম্মদ আলমগীর বলেছেন, ‘‘ইভিএমের ফলাফল শিট হাতে লেখার সময় ঝুড়ির ভোট ঘুড়িতে যাওয়ায় এই সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। যে স্বচ্ছতার সাথে নির্বাচন হয়ে গেলো, আপনাদের সামনে যে ফলাফল গণনা হলো, নির্বাচনের রেজাল্ট যেভাবে বের করে দেখানো হলো- এতে অস্বচ্ছ কিছু নাই।

‘ইভিএমের রেজাল্ট শিটের ফলাফল হাতে লেখার সময় ভুলে ঝুড়ির ভোট ঘুড়িতে দেয়া হয়েছিলো। এ কারণে আমি পরাজিত হই। আমাদের দাবি ছিল ইভিএমের রেজাল্টটা সঠিক করে বের করে আনার। যা আজ রির্টানিং কর্মকর্তা আপনাদের সামনে করেছেন।”

তিনি বলেন, ‘ইভিএম পদ্ধতি অনেক স্বচ্ছ। এক্সপার্টরা পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে সব কিছু দেখিয়েছেন। উনার সাথে আমার ভোটের যোগ বিয়োগ কিছু ছিল না। আমার সাথে ছিল আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর ভোটের যোগ বিয়োগের সমস্যা। এতে সুযোগ উনি পাচ্ছিলেন।’

জুবায়েদ আদেলের আদালত যাওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আদালতে উনি যেতেই পারেন। আদালত সবার জন্য খোলা। নির্বাচনের একটা বিধি আছে, নির্বাচনের একটা গেজেট হয়েছে। এর শপথ হবে। এর পর নির্বাচন কমিশন একটা ট্রাইবুনাল গঠন করবেন। সেই ট্রাইবুনালে কারো কোনো আপত্তি থাকলে জানাতে পারবেন।’


ঢাকা/হাসিবুল/সনি