ঢাকা, শুক্রবার, ১৯ আষাঢ় ১৪২৭, ০৩ জুলাই ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

নির্বাচন করার সিদ্ধান্তে অনড় ইসি

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৩-১৮ ৫:২৩:৩১ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৩-১৮ ৫:২৩:৩১ পিএম
ফাইল ফটো

করোনাভাইরাস আতঙ্কের মধ্যে আগামী ২১ মার্চ ঢাকা-১০, গাইবান্ধা-৩ ও বাগেরহাট-৪ আসনের উপ-নির্বাচন করার সিদ্ধান্তে অনড় রয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

অধিকাংশ রাজনৈতিক দল এই নির্বাচন পেছানোর দাবি জানালেও সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেনি ইসি।

এছাড়া আগামী ২৯ মার্চ চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক) নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে। তাই এই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ভোটগ্রহণের দিন এবং তার আগে ও পরে কিছু কিছু যানবাহন চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

ইসি সুত্রে জানা গেছে, চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচন যদি পিছিয়ে যায় তাহলে যান চলাচলের এই সিদ্ধান্ত বাতিল হয়ে যাবে।

যান চলাচলে নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে নির্বাচন কমিশন সূত্র জানায়, নির্বাচন পরিচালনা ২-অধিশাখার উপ-সচিব মো. আতিয়ার রহমান সাক্ষরিত একটি প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, আগামী ২৯ মার্চ ভোটগ্রহণের দিন দুপুর ১টার পর থেকে এদিন রাত ১২টা পর্যন্ত চট্টগ্রাম সিটিতে বেবি ট্যাক্সি/অটোরিকশা/ইজিবাইক, পিক আপ, ট্যাক্সি ক্যাব, মাইক্রোবাস, জিপ, কার, ট্রাক, টেম্পো, ইজিবাইক ও স্থানীয় পর্যায়ের বিভিন্ন যন্ত্রচালিত যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে।

পাশাপাশি আগামী ২৭ মার্চ রাত ১২টা থেকে ৩০ মার্চ রাত ১২টা পর্যন্ত মোটরসাইকেল চলাচলের করতে পারবে না।

ইসির উপ-সচিব আতিয়ার রহমান বলেন, ‘ভোটগ্রহণের দিন বেলা ১টা পর্যন্ত চট্টগ্রাম মহানগরের সব সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্বশাসিত ও বেসরকারি অফিস/প্রতিষ্ঠান/সংস্থা খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়ায় ঐদিন দুপুর ১টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত যান চলাচল করা বন্ধ রাখা হয়েছে। কারণ, অনেকেই ঐদিন সকালে অফিস আদালতে যাবেন। তাই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছি। তবে সীমিত আকারে বাস, মাইক্রোবাস, অফিসের জিপ, কার, স্টাফ বাস ইত্যাদি চলাচলের সুযোগ দেওয়া হবে।’

এদিকে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ইসির অনেক কর্মচারী করোনাভাইরাস আতংকে ভুগছেন। তাদের অনেকের ধারণা করোনার কারণে ঢাকা ১০ আসনের উপ-নির্বাচন না পেছালেও চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচন পেছাতে পারে। কারণ, এই মুহূর্তে চট্টগ্রাম করোনা ঝুঁকিতে রয়েছে।

ইসির সিনিয়র সচিব মো. আলমগীর বলেন, ‘নির্বাচন পেছানোর বিষয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। আমরা এখনো আশা করছি নির্বাচন করার মতো পরিস্থিতি দেশে বিরাজ করছে। তবে পরিস্থিতি যদি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়, সেক্ষেত্রে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

 

ঢাকা/হাসিবুল/সনি