ঢাকা, বুধবার, ৫ ভাদ্র ১৪২৬, ২১ আগস্ট ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

যে কারণে স্থগিত ২৯ কেন্দ্রের ভোট

হাসিবুল ইসলাম : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৮-১২-৩১ ৯:০৫:৫০ এএম     ||     আপডেট: ২০১৮-১২-৩১ ৮:৪৮:১৮ পিএম
যে কারণে স্থগিত ২৯ কেন্দ্রের ভোট
Walton E-plaza

হাসিবুল ইসলাম মিথুন : সংঘর্ষ, ব্যালট পেপার ছিনতাইসহ বিচ্ছিন্ন ঘটনার কারণে ২৯৯টি আসনের ২৯টি ভোটকেন্দ্রের ভোট স্থগিত করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

সারা দেশের নির্বাচনী রিটার্নিং কর্মকর্তার প্রতিবেদনের ভিত্তিতে এ সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়েছে। বেশিরভাগ কেন্দ্রেই ব্যালট পেপার ও বাক্স ছিনতাই, সহিংসতা এবং বেশকিছু বিচ্ছন্ন ঘটনার কারণে এইসব কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়।

রংপুর-২ আসনে কালীগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রটিতে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি এবং কতিপয় দুষ্কৃতকারী জালভোট দেওয়ার চেষ্টা করায়  ভোটগ্রহণ বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

চাপাইনবাবগঞ্জ-১ আসনে চারটি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে। কেন্দ্রেগুলো হলো-তেররশিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বাগবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চরজগন্নাথপুর উচ্চ বিদ্যালয় এবং চার হাসানপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। ব্যালট পেপার ছিনতাই ও ব্যালট বাক্স ছিনতাই করে নিয়ে যাওয়ার কারণে ভোটগ্রহণ বন্ধ করা হয়েছে।

শেরপুর-১ আসনে দুইটি কেন্দ্রে দুবৃত্তরা অস্ত্র ও লাঠিপেটা নিয়ে আক্রমণ করে ভোটকেন্দ্রে দখলের চেষ্টা করে। তারা ব্যালট পেপার ছিনতাই করে। পরিস্থিতি প্রিজাইডিং অফিসারের নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায় । তা্ই ভোটগ্রহণ বন্ধ ঘোষণা করা হয়। কেন্দ্রগুলো হলো জামিয়া আরাবিয়া তালিমুননেছা মহিলা মাদ্রাসা এবং সাহাব্দিরচর মধ্যপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

নরসিংদী-৩ আসনে কোন্দারপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রটি সংঘর্ষে একজন নিহত হওয়ায় এবং ৬টি ব্যালট বাক্স ছিনতাই হওয়ায় ভোটগ্রহণ বন্ধ ঘোষণা করা হয়।

ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়া-১ আসনে দুইটি কেন্দ্রে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় ভোটগ্রহণ স্থগিত ঘোষণা করা হয়। কেন্দ্র দুইটি ধানতলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং কোয়রপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

বাক্ষ্রণবাড়িয়া-২ আসনে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনতি হওয়ার কারণে প্রিজাইডিং অফিসার তিনটি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত করে। কেন্দ্রগুলো হলো যাত্রাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বাহাদুরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং সোহাগপুর দক্ষিণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ আসনে রাজঘর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে পুলিশের গুলিতে একজন নিহত হওয়ায় দুপুর ১টায় ভোটগ্রহণ বন্ধ করা হয়।

কুমিল্লা-১ আসনে ভেলানগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কেন্দ্রটিতে ৫টি ব্যালট বাক্স ভাঙ্গচুর এবং ব্যালট পেপার ছিনতাই হওয়ায় ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়।

কুমিল্লা-৭ আসনে পশ্চিম বেলাশ্বর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভোটকেন্দ্র স্থগিত হয়। ব্যালট বাক্স ছিনতাই এবং ভাঙচুর হয়। ব্যালট বাক্স ছিনতাইকালে একজন ছিনতাইকারী পুলিশের গুলিতে নিহত হয়।

কুমিল্লা-৮ আসনে আড্ডা ডিগ্রি কলেজ কেন্দ্রে ভোটের আগের রাতে ব্যালট পেপার ছিনতাইসহ নানা অপ্রিতিকির ঘটনা ঘটায় কেন্দ্রটিতে ভোট স্থগিত হয়।

কুমিল্লা-১০ আসনে বলরামপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রটিতে দুর্বৃত্তরা প্রায় ১৮০০ ব্যালট পেপার আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেওয়ার কারণে ভোটগ্রহণ করা সম্ভব হয়নি।

চাঁদপুর-৫ আসনে দক্ষিণ বড়কুল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ব্যালট বাক্স ছিনতাই ও ব্যালট পেপার চুরি হওয়ায় ভোটগ্রহণ করা সম্ভব হয়নি।

নোয়াখালী-১ আসনে ব্যালট পেপার ছিনাতাই হওয়ায় তিনটি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত হয় । কেন্দ্রগুলো হলো- কেগনা নতুন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পশ্চিম বজরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং নওয়াবগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

নোয়াখালী-২ আসনে মধ্য নাটেশ্বর ইসলামিয়া এবতেদায়ী নুরানী দাখিল মাদ্রাসা কেন্দ্রেটিতে দুর্বৃত্তরা প্রিজাইডিং অফিসার, সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার এবং পুলিশসহ ৮ জন আহত হওয়ায় ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়।

নোয়াখালী-৩ আসনে চারটি কেন্দ্রে ব্যালট পেপার ছিনতাই, ব্যালট বাক্স এবং নির্বাচনী মালামাল ছিনতাইয়ের কারণে ভোটগ্রহণ করা সম্ভব হয়নি। কেন্দ্রগুলো-হলো খানপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মধ্য নরোত্তমপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পূর্ব বাবুনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং মুরাদনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

সুনামগঞ্জ-৩ আসনে কারাড়াই মাদ্রাসায় ব্যালট বাক্স ছিনতাই হওয়ার কারণে ভোটগ্রহণ স্থগিত হয়।

সুনামগঞ্জ-৫ আসনে কলাউড়া দারুস সুন্নাহ কাসিমিয়া সিনিয়র মাদ্রাসা কেন্দ্র্রটিতে ভোটগ্রহণ বন্ধ আছে।

কক্সবাজার-১ আসনে মাতবর পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রটিতে ভোটকেন্দ্রর বাইরে দুপক্ষের সংর্ঘষে ছুরিকাঘাতে আব্দুল্লাহ আল ফারুক নামে একজন মারা যান। এ জন্য ওই কেন্দ্রের ভোট স্থগিত করা হয়।

চট্টগ্রাম-১০ আসনে শহীদনগর সিটি করপোরেশন সরকারি বালিকা প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রটিতে ভোটগ্রহণে অনিয়ম থাকায় ভোট স্থগিত করা হয়।

রাঙ্গামাটিতে একটি কেন্দ্রে ভোরে ঘাগড়া ইউনিয়ানাধীন রাঙ্গীপাড়ায় বিএনপি এবং আওয়ামী লীগ কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষে উভয়পক্ষের ১০ থেকে ১২ জন কর্মী আহত হন। সংঘর্ষে ঘাগড়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো বশিরউদ্দিন মারা যান। এজন্য ভোট স্থগিত করা হয়।

ফলাফল ঘোষণার সময় নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ সাংবাদিকদের বলেন, গোলযোগ এবং অনিয়মের কারণে ২২টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে। বাদ বাকি সকল কেন্দ্রে শান্তিপূর্ণভাবে এবং ভোটারদের ব্যাপক অংশগ্রহণের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ সুসম্পন্ন হয়েছে।

সচিব জানান, সারা দেশে কিছু সহিংস ঘটনা ঘটেছে। এগুলো কমিশনের নজরে এসেছে। এই সহিংস ঘটনার প্রত্যেকটি বিষয় তদন্ত করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য নির্দেশনা দিয়েছে কমিশন।




রাইজিংবিডি/ঢাকা/৩১ ডিসেম্বর ২০১৮/হাসিবুল/ইভা   

Walton AC
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       

Walton AC
Marcel Fridge