ঢাকা, মঙ্গলবার, ৮ শ্রাবণ ১৪২৬, ২৩ জুলাই ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

সিলেটে ৫টিতে নৌকা বিজয়ী, একটিতে উদীয়মান সূর্য

আব্দুল্লাহ আল নোমান : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৮-১২-৩১ ১০:৩৬:০৭ এএম     ||     আপডেট: ২০১৮-১২-৩১ ১০:৩৬:০৭ এএম
সিলেটে ৫টিতে নৌকা বিজয়ী, একটিতে উদীয়মান সূর্য
Voice Control HD Smart LED

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিলেট : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিলেট জেলার ছয়টি আসনের মধ্যে পাঁচটি আসনেই বিপুল ভোটে জয় পেয়েছেন আওয়ামী লীগের নৌকার প্রার্থীরা। আর একটি মাত্র আসনে জয় পেয়েছেন ঐক্যফ্রন্টের শরিক গণফোরাম।

আওয়ামী লীগের বিজয়ীদের মধ্যে সিলেট-৩ আসনের মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী কয়েস, সিলেট-৪ আসনের ইমরান আহমদ ও সিলেট-৬ আসনে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ টানা তৃতীয়বারের মতো বিজয়ী হয়ে হ্যাটট্রিক করেছেন। আর তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত হয়েছেন সিলেট-৫ আসনের হাফিজ আহমদ মজুমদার।

মর্যাদার আসন খ্যাত সিলেট-১ আসনে প্রথমবারেই বাজিমাত করেছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী ড. এ কে আবদুল মোমেন। তিনি ছাড়াও সিলেট-২ আসনে গণফোরামের মুকাব্বির খান ঐক্যফ্রন্টের সমর্থনে উদীয়মান সূর্য নিয়ে প্রথমবার নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেই জয়ের দেখা পেলেন।

রোববার দিনভর ভোটগ্রহণের পর রাত সাড়ে ১০টা থেকে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা জেলা প্রশাসক কাজী এম এমদাদুল ইসলাম নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা শুরু করেন। একে একে সবকটি আসনের ফলাফল ঘোষণা রাত পৌনে ১টায় শেষ হয়।

ঘোষিত ফলাফল অনুসারে সিলেট-১ (সিটি করপোরেশন ও সদর উপজেলা) আসনে বিজয়ী আওয়ামী লীগের ড. এ কে আবদুল মোমেন পেয়েছেন ২ লাখ ৯৮ হাজার ৬৯৬ ভোট। আর তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের খন্দকার আবদুল মুক্তাদির পেয়েছেন ১ লাখ ২৩ হাজার ৮৫১ ভোট। সেই হিসাবে ভোটের ব্যবধান ১ লাখ ৭৪ হাজার ৮৪৫টি। সিলেট-১ আসনে ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ২১৫টি।

সিলেট-২ (বিশ্বনাথ ও ওসমানীনগর) আসনে ৩৮ হাজার ৯৭১ ভোট বেশি পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট সমর্থিত গণফোরামের প্রার্থী মুকাব্বির খান। ১২৭টি কেন্দ্রের প্রাপ্ত ফলাফলে তিনি উদীয়মান সূর্য প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৬৯ হাজার ৪২০ ভোট।

তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র ডাব প্রতীকের মুহিবুর রহমান পেয়েছেন ৩০ হাজার ৪৪৯ ভোট। আরেক স্বতন্ত্র প্রার্থী সিংহ প্রতীকের এনামুল হক সর্দার ২০৭৪৬ ভোট পেয়ে তৃতীয় হয়েছেন। এই আসনের বর্তমান সাংসদ মহাজোটের লাঙল প্রতীকের এ এম ইয়াহইয়া চৌধুরী এহিয়া ১৮,০৩৮ ভোট পেয়ে চতুর্থ অবস্থানে রয়েছেন।

সিলেট-৩ (দক্ষিণ সুরমা, ফেঞ্চুগঞ্জ ও বালাগঞ্জ) আসনে টানা তৃতীয়বারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের নৌকার প্রার্থী মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী কয়েস। ১৩৮ কেন্দ্রে তিনি ১ লাখ ৭৬ হাজার ৫৮৭ ভোট পেয়েছেন। আর তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ধানের শীষের শফি আহমদ চৌধুরী পেয়েছেন ৮৩ হাজার ২৮৮ ভোট। সেই হিসাবে ভোটের ব্যবধান ৯৩ হাজার ২৯৯।

সিলেট-৪ (জৈন্তাপুর, গোয়াইনঘাট ও কোম্পানীগঞ্জ) আসনে আওয়ামী লীগের ইমরান আহমদও টানা তৃতীয়বারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। তার প্রাপ্ত ভোট ২ লাখ ২৩ হাজার ৬৭২। এ আসনের ১৫৩ কেন্দ্রের সবকটি কেন্দ্রে ভোটগণনা শেষে তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী বিএনপি নেতৃত্বাধীন ঐক্যফ্রন্টের দিলদার হোসেন ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৯৩ হাজার ৪৪৮ ভোট। সেই হিসাবে ভোটের ব্যবধান ১ লাখ ৩০ হাজার ২২৪।

সিলেট-৫ (কানাইঘাট ও জকিগঞ্জ) আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হাফিজ আহমদ মজুমদার জয়ী হয়েছেন। এ আসনের ১৫৮টি কেন্দ্রের ফলাফলে নৌকা প্রতীকে ১ লাখ ৩৯ হাজার ৭৩৫টি ভোট পেয়েছেন তিনি।

তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট মনোনীত প্রার্থী জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের মাওলানা উবায়দুল্লাহ ফারুক ধানের শীষ প্রতীকে ৮৬ হাজার ১৫১ ভোট পেয়েছেন। সেই হিসাবে ভোটের ব্যবধান ৫৩ হাজার ৫৮৪।

হাফিজ আহমদ মজুমদার এ নিয়ে তৃতীয়বারের মতো জাতীয় সংসদের সদস্য নির্বাচিত হলেন তিনি। এর আগে ১৯৯৬ সালে প্রথমবার এবং ২০০৮ সালে দ্বিতীয়বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

সিলেট-৬ (বিয়ানীবাজার ও গোলাপগঞ্জ) আসনে লক্ষাধিক ভোটের ব্যবধানে ফের জয়ী হয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। তিনিও এবারের নির্বাচনে জয়ের মধ্য দিয়ে হ্যাটট্রিক করেছেন। এই আসনের ১৯১টি ভোটকেন্দ্রের ঘোষিত ফলাফলে নুরুল ইসলাম নাহিদ পেয়েছেন ১ লাখ ৯৬ হাজার ১৫ ভোট।

তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ধানের শীষ প্রতীকের ফয়সল আহমদ চৌধুরী পেয়েছেন ১ লাখ ৮ হাজার ৮৯ ভোট। ভোটের ব্যবধান ৮৭ হাজার ৯২৬।

এ আসনে ভোটার সংখ্যা ৩ লাখ ৯৩ হাজার ৮৮৫ জন। এর মধ্যে নারী ভোটার ১ লাখ ৯৮ হাজার ১৬৯ জন এবং পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৯৫ হাজার ৭১৬ জন।

বর্তমান সাংসদ শিক্ষামন্ত্রী নাহিদ ২০০৮ সালে আওয়ামী লীগর প্রার্থী হয়ে এবং ২০১৪ সালে নৌকা প্রতীক নিয়ে বিনা প্রতিন্দ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন। এর আগে তিনি ১৯৯৬ সালেও আওয়ামী লীগের নৌকা নিয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিলেটের ছয়টি আসনে আওয়ামী লীগ, বিএনপির প্রার্থীসহ বিভিন্ন দলের ৪৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। এ জেলার মোট ভোটার সংখ্যা ২২ লাখ ৫২ হাজার ৭৬৪ জন। মোট ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ছিল ৯৯২টি।




রাইজিংবিডি/সিলেট/৩১ ডিসেম্বর ২০১৮/আব্দুল্লাহ আল নোমান/সাইফুল

Walton AC
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       

Walton AC
Marcel Fridge