ঢাকা, শুক্রবার, ২০ চৈত্র ১৪২৬, ০৩ এপ্রিল ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

রক্ত দেখে অজ্ঞান হওয়ার প্রকৃত কারণ

এস এম গল্প ইকবাল : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৮-১৯ ১০:৪০:২৩ এএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৮-১৯ ১:১৫:২২ পিএম
প্রতীকী ছবি

এস এম গল্প ইকবাল : ভয়ানক মারপিটের সিনেমায় রক্ত কিংবা রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ দেখে কিছু মানুষের মনে ভয় জাগে। কিন্তু অনেকের ক্ষেত্রে এটি সমস্যার কারণ হতে পারে- এমনকি বাস্তব জীবনে রক্ত দেখাও। রক্ত বা রক্তপাতের ঘটনা দেখে তারা অজ্ঞান হয়ে যেতে পারে, এমনকি রক্তক্ষয়ী কোনো ঘটনার বিবরণ শুনেও। আপনি সম্ভবত সিনেমা কিংবা টেলিভিশনে এ ধরনের অজ্ঞান হওয়ার দৃশ্য অবলোকন করে থাকতে পারেন।

যদি আপনি রক্ত দেখে অজ্ঞান হয়ে যান, তাহলে আপনার ভ্যাসোভাগাল সিনকোপের অভিজ্ঞতা হয়েছে, যেখানে আপনার হার্ট রেড ও ব্লাড প্রেশার হঠাৎ করে খুব দ্রুত অত্যধিক হ্রাস পায়। যখন হঠাৎ করে আপনার ব্লাড প্রেশার কমে যাবে, তখন মস্তিষ্কে রক্তপ্রবাহ হ্রাস পাওয়ার কারণে আপনি চেতনা হারিয়ে ফেলতে পারেন।

ক্রনিক লো ব্লাড প্রেশারের লক্ষণ না দেখা পর্যন্ত ভ্যাসোভাগাল রেসপন্স জনিত অজ্ঞান হওয়া দুশ্চিন্তার কিছু নয়। এমনকি কিছু কারণে স্বাস্থ্যবান লোকেরাও অজ্ঞান হতে পারে, যা রক্ত দেখার সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত নয়। যদি আপনি জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন তাহলে এটি যে মারাত্মক কোনো দশার লক্ষণ নয় তা নিশ্চিত হতে চিকিৎসকের কাছে যেতে পারেন।

রক্ত দেখে চেতনা হারানোর আরেকটি কারণ হতে পারে উত্তরাধিকার সূত্রে পাওয়া বৈশিষ্ট্য। যুক্তরাষ্ট্রের ওহাইওতে অবস্থিত ক্লিভল্যান্ড ক্লিনিকের সেন্টার ফর সিনকোপ অ্যান্ড অটোইমিউন ডিসঅর্ডারের মেডিক্যাল ডিরেক্টর ফ্রেড জায়েগার এনবিসি নিউজকে বলেন, ‘গুহামান পূর্বপুরুষদের কাছ থেকে চলে আসা একটি রেসপন্স হতে পারে অজ্ঞান হওয়া। উদাহরণস্বরূপ, মনে করুন যে আপনি একজন গুহামানব এবং অন্য এক গুহামানব এসে আপনার হাত কেটে ফেলল, এই রক্তক্ষয়ী দৃশ্য বা ইনজুরি আপনাকে অজ্ঞান করে দিল। আপনি মাটিতে লুটিয়ে থাকার কারণে গুহামানবটির কাছে আপনাকে মৃত মনে হল, যার ফলে সে আপনার মাথা বিচ্ছিন্ন করল না।’ ডা. জায়েগার উল্লেখ করেন যে, ভ্যাসোভাগাল সিনকোপ সেসব পূর্বপুরুষদের থেকে আসা বৈশিষ্ট্য হতে পারে যারা অন্যদিন যুদ্ধ করার জন্য বেঁচেছিল- এটি হচ্ছে সারভাইবাল অব দ্য ফিটেস্টের একটি যথাযথ দৃষ্টান্ত।

যদি আপনি অজ্ঞান হতে যাচ্ছেন এটা বুঝতে পারেন তাহলে পা প্রসারিত করে শুয়ে পড়ুন, এটি আপনার মস্তিষ্কে রক্তপ্রবাহ বজায় রাখতে সাহায্য করবে। অজ্ঞান হওয়ার পর দ্রুত রিকভার পেতে বা রক্তপ্রবাহ আবার বাড়াতে আপ্লায়েড টেনশন টেকনিক প্রয়োগ করতে পারেন।

তথ্যসূত্র : রিডার্স ডাইজেস্ট




রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৯ আগস্ট ২০১৮/ফিরোজ