ঢাকা, শুক্রবার, ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৫ নভেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

মোসাদ্দেককে ওপেনে পাঠাতে চেয়েছিলেন সাকিব

ইয়াসিন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৯-০৮ ৮:২৬:০৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৯-০৮ ১০:১১:০০ পিএম

চট্টগ্রাম থেকে ক্রীড়া প্রতিবেদক: শুরুতে কোনোভাবেই উইকেট দেওয়া যাবে না আফগানিস্তানকে। সাকিবের পরিকল্পনা ছিল এরকম।  যে করেই হোক মোহাম্মদ নবীকে সামলাতে হবে।

বাংলাদেশের ব্যাটিং অর্ডারের টপ থ্রি সব বাঁহাতি।  নবী তাদের জন্য আতঙ্কের নাম।  এজন্য ব্যাটিং অর্ডারে পরিবর্তন করার সিদ্ধান্ত নেয় টিম ম্যানেজম্যান্ট। সাকিবের প্রস্তাব ছিল, শুরুতেই দুই ডানহাতি ব্যাটসম্যান পাঠানোর। এজন্য মোসাদ্দেক ও লিটনের নাম সুপারিশ করেছিলেন। কিন্তু দলের সবার ভোটাভুটিতে লিটনের সঙ্গে সাদমানকে পাঠানোর সিদ্ধান্ত হয়,‘আমি মোসাদ্দেককে ওপেন করতে পাঠাতে চেয়েছিলাম। শুধু আমার সিদ্ধান্ত হলে মোসাদ্দেক আর লিটন ওপেন করত। যেহেতু আমার সিদ্ধান্ত পুরো ছিল না সেহেতু সাদমান গিয়েছে। সবার বিশ্বাস ছিল এই পরিকল্পনায় ভালো একটা সুযোগ থাকবে।’

‘প্রথম ইনিংসে আমরা যতজন ব্যাটিং করেছি সবচেয়ে বেশি স্বাচ্ছন্দ্যে মোসাদ্দেক ব্যাটিং করেছে। বিশেষ করে স্পিনে।  তার বড় ইনিংস খেলারও অভিজ্ঞতা আছে।  প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে চার বা পাঁচটা ডাবল সেঞ্চুরি করেছে।  আমাদের চারশ চেজ করতে হলে এরকম কিছু খেলোয়াড়কে দরকার হতো যাদের বড় ইনিংস খেলার অভ্যাস আছে বা খেলে অভ্যস্ত। ’

অবশ্য মোসাদ্দেককে মাঠে নামতে অপেক্ষা করতে হয়নি। লিটন ফিরে যাবার পর প্রথমবারের মতো তিনে ব্যাটিংয়ে আসেন। প্রথম ইনিংসে দারুণ ব্যাটিংয়ে ৪৮ রানে অপরাজিত থাকায় সাকিবের বিশ্বাস অর্জন করতে পেরেছিলেন ভালোভাবেই। কিন্তু দ্বিতীয় ইনিংসে হাসেনি মোসাদ্দেকের ব্যাট। তেড়েফুড়ে মারতে গিয়ে উইকেট বিলিয়ে আসেন ১২ রানে।  মোসাদ্দেক বড় ইনিংস খেলার সুযোগ নষ্ট করেছেন, এমনটাই মনে করছেন সাকিব নিজেও। 

‘যতক্ষণ ব্যাট করছিল ততক্ষণ খুব ভালো ব্যাটিং করেছে।  সুযোগটা বাস্তবায়ন করতে পারেনি। এটা ওর ব্যর্থতা।  মেনেই নিতে হবে।  ওই শটটা উপরে না মেরে নিচে মারলে চার রান যোগও হতো, আউটও হতো না।  কিন্তু যতক্ষণ খেলেছে কখনো মনে হয়নি স্পিনের বিপক্ষে ও আউট হবে।’

মোসাদ্দেককে ওপরে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্তকে বাজে বলতে রাজী নন সাকিব,‘মোসাদ্দেক আজকে ১০০ করে নটআউট থাকলে সবাই বলতো, ওয়াও কী দারুণ সিদ্ধান্ত। যেহেতু পারেনি, তাই বাজে সিদ্ধান্ত।’

অধিনায়কের আস্থা পাওয়ার পরও মোসাদ্দেক যেভাবে দৃষ্টিকটু শটে নিজের উইকেট বিলিয়ে দিয়েছেন তাতে ব্যর্থতার দায়ভার পুরোটাই তাকে নিতে হচ্ছে। এমন সুযোগ আর কখনো পাবেন কিনা সন্দেহ!


রাইজিংবিডি/চট্টগ্রাম/৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯/ইয়াসিন/আমিনুল

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন