Breaking News
ইস্কাটনে ভবনে ভয়াবহ আগুন, শিশুসহ নিহত ৩
X
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

মালান-মরগান মাস্টারক্লাসে উড়ে গেল নিউজিল্যান্ড

ক্রীড়া ডেস্ক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১১-০৮ ৩:১৪:৫৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১১-০৮ ৩:২৮:৪৫ পিএম

একজন গড়লেন দেশের হয়ে দ্রুততম সেঞ্চুরির রেকর্ড, আরেকজন দ্রুততম ফিফটির। ডেভিড মালান ও এউইন মরগানের রেকর্ড জুটিতে ইংল্যান্ড গড়ল রানের পাহাড়। সেই পাহাড়ে চাপা পড়ল নিউজিল্যান্ড। কিউইদের উড়িয়ে দিয়ে সিরিজে ফিরল ইংল্যান্ড।

নেপিয়ারে শুক্রবার চতুর্থ টি-টোয়েন্টিতে ইংল্যান্ড পেয়েছে ৭৬ রানের বড় জয়। আগে ব্যাটিংয়ে নেমে এই ফরম্যাটে নিজেদের সর্বোচ্চ ৩ উইকেটে ২৪১ রান করে ইংল্যান্ড। জবাবে নিউজিল্যান্ড ১৬৫ রানে গুটিয়ে যায় ১৯ বল বাকি থাকতেই।

দুই দলের দুটি করে জয়ে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে এখন ২-২ সমতা। রোববার অকল্যান্ডে হবে সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচ।

ম্যাকলিন পার্কে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ১৬ রানে জনি বেয়ারস্টোকে হারিয়েছিল ইংল্যান্ড। ৫৮ রানে ফেরেন আরেক ওপেনার ব্যানটন (৩১)। এরপরই মালান-মরগানের সেই জুটি।

তৃতীয় উইকেটে মাত্র ৭৪ বলে ১৮২ রানের জুটি গড়েন দুজন। যেকোনো উইকেট জুটিতে এটি ইংল্যান্ডের সর্বোচ্চ। এই জুটির পথে মরগান করেন ইংল্যান্ডের হয়ে দ্রুততম ২১ বলে ফিফটি। আরেক বাঁহাতি মালান গড়েন দেশের হয়ে দ্রুততম সেঞ্চুরির রেকর্ড, ৪৮ বলে। শেষ পর্যন্ত ৫১ বলে ৯ চার ও ৬ ছক্কায় ১০৩ রানে অপরাজিত ছিলেন তিনি।

সেঞ্চুরির সম্ভাবনা জাগিয়েছিলেন মরগানও। শেষ ওভারের তৃতীয় বলে টিম সাউদিকে ছক্কায় উড়িয়ে পৌঁছে গিয়েছিলেন ৯১-এ। কিন্তু পরের বলে আউট হয়ে যান ইংলিশ অধিনায়ক। ৪১ বলে ৭টি করে চার ও ছক্কায় ইনিংসটি সাজান বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। শেষ ১০ ওভারে ইংল্যান্ড তোলে ১৫৩ রান!

নিউজিল্যান্ডের প্রায় সবাই দুই হাতে রান বিলিয়েছেন। এর মধ্যে ডানহাতি পেসার ব্লাইর টিকনার ৪ ওভারে খরচ করেন ৫০ রান। ৩২ রানে ২ উইকেট নেওয়া বাঁহাতি স্পিনার মিচেল স্যান্টনারই যা একটু ভালো বোলিং করেছেন।

বড় লক্ষ্য তাড়ায় মার্টিন গাপটিল ও কলিন মানরো নিউজিল্যান্ডকে উড়ন্ত সূচনাই এনে দিয়েছিলেন অবশ্য। পঞ্চম ওভারে ১৪ বলে ৩ ছক্কা ও এক চারে ২৭ রান করা গাপটিলকে ফিরিয়ে ৫৪ রানের উদ্বোধনী জুটি ভাঙেন টম কুরান।

কিউইরা পথ হারায় এরপরই। দশ ওভারের মধ্যেই স্কোর হয়ে যায় ৬ উইকেটে ৮৯! কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম, রস টেলররা নিজেদের মেলে ধরতে পারেননি। মানরো করেন ৩০ রান। এরপর সাউদির ১৫ বলে ২ চার ও ৪ ছক্কায় ৩৯ রানের ইনিংসে স্বাগতিকরা পরাজয়ের ব্যবধানই কমাতে পারে শুধু।

ইংল্যান্ডের লেগ স্পিনার ম্যাট পার্কিনসন ৪ উইকেট নিলেও ছিলেন খরুচে। ৪ ওভারে দেন ৪৭ রান। ২৪ রানে ২ উইকেট নেন ক্রিস জর্ডান। দুই কুরান ভাই- টম ও স্যাম নেন একটি করে উইকেট। সেঞ্চুরির জন্য ম্যাচ সেরা হয়েছেন মালান।

 

ঢাকা/পরাগ

     
 
রাইজিংবিডি স্পেশাল ভিডিও